,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

টেকনাফে সীমান্তে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ৩ লাখ ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার নৌকা জব্দ

নুরুল আলম টেকনাফ প্রতিনিধিঃ টেকনাফে ৩ লাখ ২২ হাজার পিস ইয়াবা বড়িসহ একটি নৌকা জব্দ করেছে কোস্টগার্ড সদস্যরা। এসময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। বুধবার ভোররাতে টেকনাফের সাবরাংয়ের কাটাবুনিয়া সংলগ্ন এলাকায় সমুদ্রের তীরে অভিযান চালিয়ে একটি মাছ ধরার ইঞ্জিন চালিত কাঠের নৌকা থেকে এসব ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোস্টগার্ড সদস্যরা জানতে পারে, মিয়ানমার থেকে একটি ইয়াবার চালান বাংলাদেশে পাচার হতে পারে। তারই সূত্র ধরে, টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশন কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হকের নেতৃত্বে উক্ত এলাকায় অভিযানের যান কোস্টগার্ড সদস্যরা এবং সাবরাং জিরো পয়েন্ট এলাকায় অবস্থান নেন।

পরে একটি কাঠের নৌকা আসতে দেখা যায়। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় সংকেত দিলে তারা অমান্য করে পালানোর চেষ্টা চালালে ধাওয়া করা হয়। পরে নৌকাটি সমুদ্র তীরে ভিড়িয়ে দিয়ে লোকজন পালিয়ে যায়। পরে নৌকায় তল্লাশি করে ৩লাখ ২২হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। এসময় মাছ ধরার নৌকাটিতে উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের নোয়াপাড়া এলাকার ওসমান গণির ছেলে মোহাম্মদ আরমান নামের মালিকাধীন লাইন্সেস ও একটি নোটবুক উদ্ধার করা হয়েছে।

এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদর দপ্তর গোয়েন্দা পরিদপ্তর শাখার (মিডিয়া কর্মকর্তা) লেফটেন্যান্ট কমান্ডার বিএন এম. হামিদুল ইসলাম।

অভিযান পরিচালনাকারী কর্মকর্তা ও টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশন কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হক বলেন, জব্দ করা ইয়াবা ও কাঠের নৌকা আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য টেকনাফ মডেল থানা পুলিশে হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ