,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি সন্তানের নির্যাতনের শিকার ১ অসহায় মা

জুয়েল শেখ জয়পুরহাটনঃ জয়পুরহাটের পাঁচবিবি ছেলের হাতে নির্যাতনে শিকার হয়েছেন মা মেহেরুন বেওয়া ৬৮ অসহায় ১ মা ছেলের হাতে মার খেয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় আর মানুষের দ্বারে দ্বারে বিচারের আশায় ঘুরে বেড়াতে দেখা গেছে

প্রায় প্রতিনিয়ত ছেলে হাতে শরীরিক নির্যাতনের শিকার হতে হয় এই বিধবা মাকে স্থানীয় চেয়ারম্যান-মেম্বার দ্বারা বিচার করেও কোন সঠিক বিচার পায়নি এই বৃদ্ধা মা এলাকাবাসী জানিয়েছেন ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ভিমপুর গ্রামে।

পাঁচবিবি উপজেলার ভীমপুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মৃত মকবুল হোসেনের স্ত্রী মেহেরুন বেওয়াকে তার ছেলে হাবিবুল মেরে রক্তাক্ত করে বাড়ি থেকে রাস্তায় বের করে দিয়েছেন এ কথা জানান এলাকাবাসী এই অসহায় বৃদ্ধ মাকে তার ছেলে প্রতিনিয়ত মারধর করে। সঠিক বিচার চেয়ে বলেন সাংবাদিক দের মাধ্যমে।

অসহায় মা মেহেরুন বেওয়া কেঁদে কেঁদে বলেন, কত কষ্ট করে সন্তান কে জন্ম দিয়েছি আবার নিজে না খেয়ে তাদের মানুষ করেছি। আজ তার প্রতিদান এই নির্যাতনের শিকার হতে হয় প্রতিনিয়ত আমাকে ছেলে ও বউ আর মেয়েদের কথা শুনে মারে। আজ সকালে নাতনির কাছ থেকে মাংস কিনার জন্য কিছু টাকা চাইছি। আমার কথা না শুনে মেয়ের কথা শুনে হাবিবুল আমাকে গলা টিপে ধরে মাটিতে ফেলে মারতে থাকে। আমি আর সহ্য করতে পারছি না বাবা, তোমরা আমার বিচার করে দেও।

এবিষয়ে পাঁচবিবি থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি পলাশ চন্দ্র দেব কে জানালে তিনি জানান, মাকে যে সন্তান মারধর করবে তাকে আইনের আওতায় এনে তাকে সঠিক বিচার করা হবে এটা বড় অপরাধ, থানার অফিসারদের ঘটনাস্থলে পাঠাচ্ছি এবং এর একটি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ