,


শিরোনাম:
«» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল। «» আবদুল আউয়াল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» তুরাগ বাসীসহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার ডিলারদের অনিয়মে জিম্মি কৃষক ও চাষিরা «» ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে গাড়ির চাপায় সাবেক পুলিশ সদস্য নিহত «» চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান এমপি হাবিব হাসান। «» মশার অসহ্যকর যন্ত্রণায় তিক্ত তুরাগবাসী, দায়িত্বশীলরা বলছেন অসহায়ত্বের কথা «» তুরাগে মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর বস্তিবাসীর হামলা। 

আটঘরিয়া স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হামলা যুবলীগের সভাপতি সহ আটক ৪

ঈশ্বরদী প্রতিনিধিঃ পাবনা আটঘরিয়ার চাঁদভা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ যুবলীগের নেতা সহ ৪ যুবককে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ এই সময় তাদের কাছ থেকে ৩ টি জিআই পাইপ উদ্ধার করেছে।

আটককৃতরা হলেন, চাঁদভা ইউনিয়ন ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি ও দক্ষিণ নাগদহ গ্রামের আব্দুল হোসেনের ছেলে আব্দুল মমিন (৩৮) কোদালিয়া গ্রামের মৃত এজেম আলীর ছেলে যুবলীগ কর্মী ইউসুফ আলী (৩৬)টং বয়ড়া গ্রামের মৃত ফজর আলীর ছেলে মোন্তাজ আলী (৩৫) ও একই গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে মেহেদী হাসান।

আটঘরিয়া থানার এসআই আব্দুল কালাম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে একদল যুবক চাঁদভা ইউনিয়নের নাগদহ গ্রামের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ অলিউল্লাহ র বাড়িতে একদল যুবক হামলা করেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালায়। এই সময় হাতেনাতে ঐ ৪ যুবককে আটক করা হয়।

এই বিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ অলিউল্লাহ বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে ৬/৭টি মোটরসাইকেল যোগে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম কালামের সমর্থকরা তার বাড়িতে হামলা চালায়। এই সময় তিনি বাড়িতে না থাকায় তার পরিবারকে হুমকি দিয়ে ঘরের জানালা ও দরজায় আঘাত করতে থাকে। এই সময় ভয়ে কেউ ঘর থেকে বের হয়নি।

মোঃ অলিউল্লাহ অভিযোগ করে আরো বলেন, আমি যেন চেয়ারম্যান প্রার্থীতা শনিবারের মধ্যে প্রত্যাহার করে নেই। তা না হলে তারা আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। আর আমাকে জোরপূর্বক বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার জন্যই এই হামলা করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।
এই বিষয়ে আটঘরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ৪জনকে আটক করা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই বিষয়ে ঈশ্বরদী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সার্কেল মোঃ ফিরোজ কবির বলেন, কারো বাড়িতে হামলা হয়নি। তবে টহল পুলিশের সামনে তারা পড়লে তাদেরকে আটক করা হয়। এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ