,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

টেকনাফে ৬০ হাজার ইয়াবাসহ আটক ২ঃগাড়ীর মালিক পলাতক

নুরুল আলম,টেকনাফঃটেকনাফ থেকে কক্সবাজারগামী একটি ট্রাক তল্লাশিকালে ৬০ হাজার ইয়াবাসহ উক্ত ট্রাকের চালক এবং হেলপারকে আটক করেছে বিজিবি। শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকাল ৯ টা নাগাদ টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া বিজিবি চেকপোস্টে তল্লাশি চালিয়ে তাদের দুইজনকে আটক করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন  টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান। আটককৃত দুইজন হল- টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতী থানার সরলা গ্রামের মৃত্যু আব্দুল আজিজের ছেলে মোহাম্মদ লেবু মিয়া (২৫) এবং একই জেলা এবং থানার গ্গোহালিয়া বাড়ী গ্রামের  মোহাম্মদ ছানোয়ার হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন (৩৪)। ২ বিজিবি অধিনায়ক জানান, দমদমিয়া চেকপোষ্টে বিজিবি সদস্যরা নিয়মিত টহলদলের সাথে তল্লাশী কার্যক্রম পরিচালনা করছিল। আনুমানিক ৯ টার দিকে টেকনাফ হতে কক্সবাজারগামী একটি ট্রাক দমদমিয়া চেকপোস্টে আসলে তা তল্লাশীর জন্য থামানো হয়।

কুকুর ব্রাভো ও হ্যান্ডেলারগণ যথারীতি তল্লাশী কার্যক্রম শুরু করলে কুকুর ব্রাভো উক্ত ট্রাকের এয়ার ক্লিনার ফিল্টারে ক্রমাগত ঘ্রান নিতে থাকে এবং  সন্দেহমূলক আচরণ প্রকাশ করে। পরবর্তীতে কুকুর হ্যান্ডেলার কর্তৃক ট্রাকের এয়ার ক্লিনার ফিল্টার খুলে বিস্তারিতভাবে নীরিক্ষার সময় ট্রাকের এয়ার ক্লিনার ফিল্টারের ভিতরে অভিনব পদ্ধতিতে ফিটিং অবস্থায় কালো টেপ দিয়ে মোড়ানো কয়েকটি প্যাকেট উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত প্যাকেটগুলো খুলে প্যাকেটের ভিতর হতে ৬০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবার আনুমানিক মুল্য ১ কোটি ৮০ লাখ টাকা।  আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা উক্ত ইয়াবাগুলো ট্রাকের মালিকের জন্য বহন করছিল বলে স্বীকার করেছে৷ ট্রাকের মালিকের নাম মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান (৩৫)। সে টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতী থানার সরলা গ্রামের মহব্বত হোসেনের ছেলে।  ট্রাকের মালিক কে পলাতক দেখিয়ে আটককৃতদের জব্দকৃত ইয়াবা ও ট্রাকসহ পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে ও জানান তিনি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ