,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

টঙ্গীতে স্বামীর পরকিয়ায় বাঁধা দেয়ায় স্ত্রীকে মারধরঃথানায় স্ত্রীর অভিযোগ

আবু হাসানঃ
গাজীপুর মহানগর টঙ্গী পূর্ব থানাধীন পূর্ব আরিচপুর বউ বাজারে গত ০২ /০৮/২০২১ ইং তারিখে স্বামীর পরকিয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্ত্রীকে মারধর করে পাষণ্ড স্বামী সরোয়ার। এ বিষয়ে ঐ নারী বাদী হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় ২ জনের নাম উল্লেখ করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগে উল্লেখ আছে বাদীর সাথে সরোয়ারের ৪ বছর পূর্ব ৭০০০০০ (সাত লক্ষ) টাকা দেনমোহর ধার্য্য করে ইসলামী সরা শরিয়া মোতাবেক পারিবারিক ভাব বিবাহ হয়। বিবাহের পর আমার একটি পুত্র সন্তান হয়, নাম মোঃ ছাহালিম বয়স ৯ মাস। বেশ কিছুদিন যাবৎ ১ নং বিবাদীর চলাফেরা আমার কাছে সন্দেহ হয়। তখন গত ২ রা আগস্ট রাত আনুমানিক ১১ ঘটিকার সময় টঙ্গী পূর্ব আরিচপুর বউ বাজারে এসে দেখতে পাই, আমার স্বামী সরোয়ার এবং ২ নং বিবাদী রিয়া ওরফে সামিয়া পরকিয়ায় লিপ্ত।
আমি পরকিয়ার বিষয়টি জেনে ফেলাই ১ নং ও ২ নং বিবাদী আমাকে এলোপাথাড়ি ভাবে মারধর শুরু করে। আমার সারা শরীরে নীলাফুলা জখম করে। বিবাদীগণ আমাকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদর্শন বলে যে কোন সময় তারা আমাকে হত্যা করবে অথবা মিথ্যা মামলা দিয়ে জেল খাটাবে। বিবাদীগণ খারাপ প্রকৃতির লোক, তারা পারেনা এমন কোন কাজ নাই। ১ নং বিবাদী সরোয়ার ( ২৮ ) ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানার কুড়াপাড়া গ্রামের জাবেদ আলীর ছেলে এবং ২ নং বিবাদী রিয়া ওরফে সামিয়া ( ২১ ) ঠিকানা অজ্ঞাত। আমার আত্ন চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে আমাকে উদ্ধার করে এ সময় বিবাদীগণ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও বিভিন্ন রকম ভয়ভীতি প্রদান করে পালিয়ে যায়। অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেন টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি ( তদন্ত ) মোঃ দেলোয়ার হোসেন। তিনি বলেন অভিযোগ তদন্ত করে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে।
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ