,


শিরোনাম:
«» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ। «» শিবগঞ্জে অস্ত্র ও ককটেল সহ ১৩ মামলার আসামি গ্রেপ্তারে র‍্যাব «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স সম্পন্ন «» ফরিদগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,অভিযুক্ত যুবক আটক «» মুহাম্মদ স: কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে তুরাগ ও উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অনুষ্ঠিত। «» দুই সন্তান নাজমুল ও সুপারেশ কর্তৃক বৃদ্ধা মা লাঞ্ছিত” থানায় অভিযোগ «» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার

টেকনাফ আশ্রয়কেন্দ্র হতে বাঙালিদেরকে বের করে দেওয়া শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

নুরুল আলম,টেকনাফঃকক্সবাজার টেকনাফ উপজেলার আওতাধীন হ্নীলা ইউনিয়নের অন্তর্গত হ্নীলা বার্মিজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকের বিরুদ্ধে আশ্রয় নেওয়া বাঙালি কে বের করে দেওয়ার গুরুত্ব পুর্ণ অভিযোগ উঠেছে। ওই শিক্ষক হল হ্নীলা মৌলভীবাজারের বাসিন্দা । শিক্ষক শমশুদ্দীন থেকে জানা যায়, আজ বিকেল ১টায় একটানা অতিবৃষ্টি হলে প্রশাসনের মাইকিং শুনে বাড়ীতে পানি উঠা লোকজন হ্নীলা বার্মিজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আশ্রয় নেওয়ার জন্য ছুটে চলে আসে। হঠাৎ কিছু বুঝে উঠতে না উঠতেই ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশ্রয় নেওয়া লোকদেরকে বারবার স্কুল ত্যাগ করে চলে যাওয়ার জন্য হুমকি দিয়ে বলে। পরে অসহায় লোকজন চলে যায়। এ ব্যাপারে অসহায় লোকজন প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছে। ভুক্তভোগী মোহাম্মদ শফি ও আছিয়া খাতুন বলেন, আমরা বৃষ্টি বেশি হওয়ায় নিরাপত্তার জন্য পরিবারসহ মিলে মিশে এই বিদ্যালয়ে আশ্রয় নিতে চলে আসছিলাম। কিন্তু প্রধান শিক্ষক আমাদেরকে থাকতে দিলেননা। এ ব্যাপারে আমরা জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা , সহকারী কমিশনার ভূমি, ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগিতা কামনা করছি। অভিযুক্ত হ্নীলা বার্মিজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শমশুদ্দীন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি আশ্রয় নেওয়া লোকদেরকে বললাম কয়েকদিন মানুষ আশ্রয় নেওয়াতে স্কুল একটু অপরিস্কার রয়েছে তাই আপনারা বাসায় গিয়ে মালামাল রেখে আসেন। এছাড়া যাদের ঘর একটু শুকনা আছে ওনারা চলে যান বললেন বলে তিনি প্রতিবেদককে জানান। হ্নীলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাবেক আওয়ামীলীগ সরকারের সংসদ সদস্য অধ্যাপক মোঃ আলী পুত্র রাশেদ মাহমুদ আলী প্রতিবেদককে বলেন, ঘটনাটি সত্য মিথ্যা নয় তবে পানিবন্দী হওয়ার কারণে আশ্রয় নেওয়া লোকদেরকে চলে যেতে বলে ওনি বিরাট অন্যায় করেছে। পরে আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তালা খুলে দিয়ে কয়েকটি পরিবারকে বিদ্যালয়ে স্থান করে দিয়েছি। আর আমি ওই শিক্ষকের কঠিন শাস্তি দাবী করছি এবং এইসব অসাধু কিছু শিক্ষকের কারণে আওয়ামীলীগের সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভাবমুর্তি নষ্ট হচ্ছে ও এদের কে আইনের আওতায় আনা হোক এবং অত্র এলাকার যুবলীগ নেতা জসিম বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা লকডাউনের মাঝে পানি বন্দী ও যে কোনো বিপদে প্রধান মন্ত্রী রুখে দাঁড়ায় অনুদান সাহায্য সহযোগিতা করে যাচ্ছে কিন্তু দুঃখ বিষয় উল্লেখ করে বলছি মানব জাতি বাঙালি বিপদে বাদা গ্রস্ত! উনি শিক্ষক হিসেবে নয় মানব জাতির শত্রু সরকারের দুর্নাম করার জন্য এই পায়তারা শুরু করছে এবং তার শাস্তির দাবি জানাই।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ