,


শিরোনাম:
«» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল। «» আবদুল আউয়াল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» তুরাগ বাসীসহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার ডিলারদের অনিয়মে জিম্মি কৃষক ও চাষিরা «» ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে গাড়ির চাপায় সাবেক পুলিশ সদস্য নিহত «» চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান এমপি হাবিব হাসান। «» মশার অসহ্যকর যন্ত্রণায় তিক্ত তুরাগবাসী, দায়িত্বশীলরা বলছেন অসহায়ত্বের কথা «» তুরাগে মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর বস্তিবাসীর হামলা। 

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফুড কার্ডকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভের চেষ্টা

নুরুল আলম,টেকনাফঃকক্সবাজার টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত বেপরোয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফুড কার্ড (রেশন কার্ড) কে কেন্দ্র করে বিক্ষোভের চেষ্টা করছে। গত জুন মাস থেকে ২০১৭ সালে মিয়ানমার থেকে আগত রোহিঙ্গাদের ফুড কার্ডের মতো ১৯৯২ সালে আগত রোহিঙ্গাদের ফুড কার্ড একই করাই এ বিক্ষোভ প্রদর্শনের চেষ্টা চালায় বেপরোয়া রোহিঙ্গারা । শুধু তাই নই, গত জুলাই মাসে ওই নিবন্ধিত অনুপ্রবেশ কারী রোহিঙ্গারা রেশন গ্রহন করছেনা। সুত্রে জানা যায়, টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে (১৯৯২ সালে অনুপ্রবেশ রোহিঙ্গা) পুরাতন ও নতুন (২০১৭ সালে আগত) রোহিঙ্গারা বসবাস করে আসছে। এতোদিন পুরাতন রোহিঙ্গাদের দখলে ফুড কার্ড নতুন রোহিঙ্গাদের ফুডকার্ডের চেয়ে ভিন্নতা ছিল।  সকল রোহিঙ্গাদের মাঝে সমপরিমাণ খাবার বিতরনের জন্য পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে ফুড কার্ড ফেরত নিয়ে গত জুন মাসে নতুন ফুড কার্ড ইস্যু করা হয়। নতুন ফুড কার্ড অন্যান্য ক্যাম্পের সমসাময়িক (২০১৭ সালে) নতুন অনুপ্রবেশ রোহিঙ্গাদের ফুড কার্ডের অনুরূপ  হওয়ায় নয়াপাড়া রেজিস্ট্রাড”  ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গারা  নতুন ফুড কার্ড গ্রহণ না করে জুলাই মাসের রেশন উত্তোলন করেনি। নয়াপাড়া রেজিস্ট্রার্ড ক্যাম্পের  পুরাতন রোহিঙ্গাদের দাবি হচ্ছে নতুন  রোহিঙ্গাদের ফুড কার্ড এবং তাদের ফুড কার্ড একই রকম হওয়াতে রেজিস্টার্ড ক্যাম্পের পুরাতন  ও নবাগত রোহিঙ্গাদের সমান মর্যাদা দেয়া হচ্ছে। তাই তারা কোন ভাবেই এটা মেনে নেবে না। এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শরণার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (RRRC) ও UNHCR কর্তৃপক্ষ ফুড কার্ড বিষয়ে ওই সিদ্ধান্ত গ্রহন করে এবং এই সিদ্ধান্তে এখনো অটল রয়েছে। কক্সবাজার জেলা ১৬ এপিবিএন এর অধিনায়ক এসপি মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম তারিক উক্ত তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ফুড কার্ড বিষয়টি নিয়ে বর্তমানে ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। গত কয়েকদিন তারা এ নিয়ে বিক্ষোভ করার চেষ্টা করলে তাদের এপিবিএন ক্যাম্পে ডেকে বোঝানো হয় এবং তারা তা মেনে নেয়। উক্ত বিষয়ে ক্যাম্প দায়িত্ব প্রাপ্ত সিআই সি এবং UNHCR  এর সাথে  আলোচনার মাধ্যমে সৃষ্ট সমস্যা সমাধানের জন্য সব প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে । আজ রবিবার ভোর থেকেই পুরাতন রোহিঙ্গারা নয়াপাড়া ক্যাম্পে বিক্ষোভ প্রদর্শন করার চেষ্টা করে যাচ্ছে l তবে এপিবিএন সতর্ক রয়েছে এবং পাহারা জোরদার করা হয়েছে পরবর্তী তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে এই বিষয় স্হানীয় বাসিন্দা বলেন আজ শোকের ছায়া কেবল শোকের মাস এই দিন পালিত হওয়ার শুরুতে এই সব তালবাহানা শুরু হয়েছে কোন গদফাদারের ইশারায় তদন্ত করা হোক এবং এই রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য মাঝে এই স্বাধীন পেলনা এবং আমাদের মাটিতে ঘুমায় আমাদের উপরে হামলায় চালান ও আন্দোলন করার পায়তারা করছেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ