,


শিরোনাম:
«» ক্ষতিগ্রস্ত ৩৩ দোকান মালিকরা পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান «» যৌতুক না পেয়ে নির্যাতনের অভিযোগ, গৃহবধূকে মারধর «» তুরাগে ১৫০টি দোকানের বিদ্যুৎ বিল মাসে ৭০০ টাকা দেখিয়ে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎকারী নামধারী নেতা গ্রেফতার। «» তুরাগে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু «» তুরাগে ২ বছরের শিশু ধর্ষণ : ধর্ষক মামুন আটক। «» ইদ-ই-মিলাদুন্নবি উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে স্বপ্নালোড়ন বাংলাদেশ «» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা।

শাহজালালে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ উদ্ধারঃ৩ যাত্রী গ্রেফতার

এস, এম, মনির হোসেন জীবনঃরাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রায় ১৪ কেজি তরল স্বর্ণসহ ৩ যাত্রীকে গ্রেফতার করেছে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ (এপিবিএন)। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হচ্ছে – মো. রিয়াজুল বাসার (৪৬), মোহাম্মদ আমিন (৩৫) ও মোকারাম খান (৩৩)। আজ মঙ্গলবার এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত এসপি জিয়াউল হক পলাশ সাংবাদিকদের সোনা আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বিমানবন্দর ও এপিবিএন পুলিশ সূএে জানা যায়, আজ ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে তার্কিশ এয়ারলাইন্সের (ফ্লাইট টি কে-৭১২) নম্বরের একটি বিমান ইস্তাম্বুল থেকে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে অবতরণ করে। এ সময় এপিবিএন পুলিশের কাছে গোয়েন্দা তথ্য আসে যে, ওই উড়োজাহাজটিতে তরল স্বর্ণের একটি বড় চালান এসেছে। সূএে আরও জানা যায়, পরে ওই তথ্যের ভিত্তিতে শাহজালাল বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে ইস্তাম্বুল থেকে আসা তার্কিশ এয়ারলাইন্সের বাংলাদেশি মো. রিয়াজুল বাসার (৪৬), মোহাম্মদ আমিন (৩৫) ও মোকারাম খান (৩৩) নামে তিন যাত্রীর নিকট থেকে প্রায় ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ উদ্বারমূলে জব্দ করা হয়। আটকৃত তিনজন যাত্রী তাদের শরীরের বিভিন্ন অংশে পেঁচিয়ে এসব সোনা দেশে বহন করে নিয়ে আসে। তবে, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ওই যাত্রী তিনজন ইস্তাম্বুল ট্রানজিটের যাত্রী ছিলেন। আটক সোনার বাজার মূল্য প্রায় ৮ কোটি টাকা বলে জানা গেছে। এবিষয়ে আটক ব্যক্তিদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে নিশ্চিত হয়ে পরবর্তীতে প্রেস ব্রিফিং করা হবে বলে জানিয়েছেন এপিবিএন কর্তৃপক্ষ।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ