,


শিরোনাম:
«» ক্ষতিগ্রস্ত ৩৩ দোকান মালিকরা পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান «» যৌতুক না পেয়ে নির্যাতনের অভিযোগ, গৃহবধূকে মারধর «» তুরাগে ১৫০টি দোকানের বিদ্যুৎ বিল মাসে ৭০০ টাকা দেখিয়ে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎকারী নামধারী নেতা গ্রেফতার। «» তুরাগে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু «» তুরাগে ২ বছরের শিশু ধর্ষণ : ধর্ষক মামুন আটক। «» ইদ-ই-মিলাদুন্নবি উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে স্বপ্নালোড়ন বাংলাদেশ «» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা।

দক্ষিণখানে ইয়াবা ও দুই রক্ষিতাসহ পুলিশের এএসআই গ্রেপ্তার

এন এ হাসান:- রাজধানীর দক্ষিণখানের আশকোনা থেকে ইয়াবা ট্যাবলেট, গাঁজা ও আরবি ওরফে আনিকা ও শাপলা নামের দুই জন রক্ষিতা নারীসহ ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) জোবায়েদ হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে র ্যাব-১। গ্রেপ্তার হওয়া ওই এএসআই দক্ষিণখান থানায় কর্মরত রয়েছেন। আশোনার আরবির ওরফে আনিতার বাসা থেকে বুধবার (১৪ জুলাই) বিকেলে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে র্যাব-১। পরবর্তীতে ওই দিন রাতেই দক্ষিণখান থানা পুলিশের কাছে আসামীদের সোপর্দ করে র্যাব বাদী হয়ে একটি মামলা করে। দক্ষিণখান থানায় কর্মরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা আজকের পত্রিকাকে বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া এএসআই জোবায়েদ হোসেনের সাথে ওই দুই নারীর অবৈধ সম্পর্ক ছিল। সেই সাথে ডিউটি যেসব ইয়াবা ও গাঁজা যেসব আসামী ধরা হতো, তাদেরকে বেশি ভাগ আসামীকেই টাকা বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়া হতো। পরবর্তীতে ওই সব ইয়াবা ও গাঁজা ওই দুই নারী দিয়ে বিক্রি করা হতো। এসব কথোপকথনের ভয়েজ রেকর্ড প্রতিবেদকের কাছে রয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে র্যাব-১ এর অপারেশন অফিসার সহকারী কমিশনার (এসি) মুশফিকুর রহমান তুষার আজকের পত্রিকাকে বলেন, এ তথ্য আপনাকে দক্ষিণখান থানা থেকে নিতে হবে। অপরদিকে দক্ষিণখান থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাম উত্তম রায় আজকের পত্রিকাকে বলেন, ইয়াবা ও গাঁজাসহ তিন জন গ্রেপ্তারের ঘটনায় র্যাব বাদী হয়ে একটি মামলা করেছে। ওই মামলার আসামীদেরকে আজ (বৃহস্পতিবার) আদালতে পাঠানো হয়েছে। আসামী কারা ও কি পরিমাণ মাদক জব্দ করা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি আজকের পত্রিকাকে বলেন, এত কিছু আমরা এখান থেকে দিতে পারবো না। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিকদার মো. শামীম হোসেন আজকের পত্রিকাকে বলেন, মাদকসহ র্যাব বাদী হয়ে যে মামলা করেছে তার মামলা নম্বর ২১। আসামী কাদেরকে করা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিনজন আসামীকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। তাদের নাম দেয়নি র্যাব।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ