,


শিরোনাম:
«» ক্ষতিগ্রস্ত ৩৩ দোকান মালিকরা পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান «» যৌতুক না পেয়ে নির্যাতনের অভিযোগ, গৃহবধূকে মারধর «» তুরাগে ১৫০টি দোকানের বিদ্যুৎ বিল মাসে ৭০০ টাকা দেখিয়ে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎকারী নামধারী নেতা গ্রেফতার। «» তুরাগে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু «» তুরাগে ২ বছরের শিশু ধর্ষণ : ধর্ষক মামুন আটক। «» ইদ-ই-মিলাদুন্নবি উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে স্বপ্নালোড়ন বাংলাদেশ «» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা।

নওগাঁয় ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাটে জমজমাট বেচাকেনা

 মো নাহিদ হাসান,নিয়ামতপুরঃ নিয়ামতপুরে সবচেয়ে বড় পশুর হাট ছাতরা বাজার । কিন্তু করণা সংক্রমণে হার বৃদ্ধি থাকার কারণে ফাঁকা জায়গায় এ বছর পশুর হাট বসানো হয়েছে। ২ নং চন্দনগর ইউনিয়নের ছাতরা বাজারের ব্যতিক্রম চন্দননগর কলেজ মাঠে এই বছর পশুর হাটটি স্থানান্তর করা হয়েছে । সকলকে মাক্স পড়তে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে । কেউ যেন যেখানে-সেখানে অযথা জটলা না করে সে দিকটি বিবেচনা করার জন্য উপজেলা নির্বাহি অফিসার এর তত্ত্বাবধানে স্থানীয় প্রশাসন, স্বেচ্ছাসেবক, সমাজসেবক , ভ্রাম্যমাণ ভেটেনারি সেবা সহ সকলেই কাজ করে যাচ্ছেন। উপজেলা নির্বাহি অফিসার জয়া মারিয়া পেরেরা কঠোর হুঁশিয়ারি এবং বিশেষ অনুরোধ করে বলেন, করণা সংক্রমণে ঊদ্ধ গতির কারণে বিশেষ ব্যবস্থার মাধ্যমে এই বছর পশুর হাট এর কার্যক্রম চলতেছে । অযথা কেউ যেন এই পশুরহাটে জটলা না করে এবং মাক্স ছাড়া হাটে যেন কেউ প্রবেশ না করে সেজন্য সবাইকে বিশেষ অনুরোধ করেন। তিনি আরো বলেন, ক্রেতা এবং বিক্রেতা ব্যতীত অযথা কেউ যেন পশুর হাটে ভিড় না করে । সরকারি বিধিনিষেধ না মানা হলে পশুর হাট বন্ধ করতে বাধ্য হবেন। অনেক দূর দূরান্ত থেকে খামারিরা তাদের বিক্রয়ের জন্য পশু এনেছেন। বাজারে পশুর প্রচুর চাহিদা থাকার জন্য এবং দাম হাতে নাগালে থাকার জন্য ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়ই খুব খুশি। সার্ভিক তত্বাবধানে উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান বদি। তিনি বলেন, যাদের মাক্স নাই তাদেরকে আমরা মাক্স দিচ্ছি । কেউ যেন জাল টাকা নিয়ে প্রতারিত না হয় সে জন্য জাল টাকা শনাক্তকরণ বুত মাঠ পযার্য়ে রয়েছে এবং ক্রেতারা যেনো স্বাস্থ্য সম্মতো পশু কুরবানির জন্য ক্রয় করতে পারেন সেই জন্য আমরা ভ্রাম্যমাণ ভেটেনারি সেবার ব্যাবস্থা করেছি। কিন্তু সবচেয়ে ভোগান্তির মধ্যে পড়েছেন ক্রেতা এবং বিক্রেতা উভয়। কারণ করোনা সংক্রমনের হার বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে চলছে বিশেষ লকডাউন । সেই জন্য সকল দোকানপাট বন্ধ থাকার কারণে এই অসহ্য গরমের মাঝে ও খাওয়া-দাওয়ার অনিশ্চয়তা ভোগাচ্ছে ক্রেতা এবং বিক্রেতা উভয় কেই । এ সময় প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা এলজিবিডি প্রজেক্ট এর সদস্যরা সহ উপস্থিত ছিলেন , রতন কুমার কর্মকার। তিনি বলেন, আমরা শতভাগ সুস্থ এবং স্বাস্থ্য সম্মত পশু জানো ক্রেতাদের হাতে উঠায়ে দিতে পারি সেই জন্য সব ব্যবস্থা সম্পন্ন করা হয়েছে । সর্বোপরি নিয়ামতপুরে জমে উঠেছে কোরবানীর পশুর হাট। যেখানে দেশি সহ বিভিন্ন জাতের গরু এবং ছাগল ন্যায্য মূল্যে বিক্রিয় হচ্ছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ