,


শিরোনাম:
«» তুরাগে গৃহবধু হত্যার অভিযোগে স্বামীর বন্ধু গ্রেফতার «» ভাড়া বাসায় অবস্থান করে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতী করতো তারা’ «» ঈশ্বরদীতে ২০০ লিটার মদসহ গ্রেফতার ১ «» ঈশ্বরদীতে নবজাতক হত্যার অভিযোগ সাবেক স্বাস্থ্যকর্মীর আকলিমার বিরুদ্ধে «» সাংবাদিকতার দায় একমাত্র জনসাধারণের কাছে:তিতুমীর «» ঈশ্বরদীতে প্রণোদনার সার-বীজ প্রদানে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ প্রকৃত কৃষকদের «» ঈশ্বরদীতে বালু খেকোদের কবলে বিলিন হাজার হেক্টর ফসলি জমি, দিশেহারা কৃষক «» ঠাকুরগাঁওয়ে বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস পালিত র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» চাঁপাইনবাবগঞ্জ সাবেক এমপি ও জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদকের বাসভবনে হামলা «» চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষকলীগের অনুষ্ঠানে সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা মিনহাজ আহত

সুনামগঞ্জে ভাতিজিকে ধর্ষনের চেষ্টাঃশ্বাসরোধ করে হত্যা

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া,সুনামগঞ্জঃসুনামগঞ্জে নিজের আপন ভাতিজিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। মৃত ভাতিজির নাম- সানজিদা বেগম (১৪)। সে জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নের সৈয়দপুর গোয়ালগাঁও গ্রামের ছয়ফুল ইসলামের মেয়ে ও মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রী। আজ বুধবার (৯ জুন) দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ভাতিজির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এঘটনার পর থেকে চাচা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। অভিযুক্ত চাচার নাম- রবিউল ইসলাম (৪০)। পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে- প্রতিদিনের মতো গতকাল মঙ্গলবার (৮ জুন) রাত অনুমান ১১টায় পড়ালেখা ও খাওয়া-দাওয়া শেষে নিজের রুমে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে মাদ্রাসা ছাত্রী সানজিদা বেগম। এরপর রাত একটু গভীর হওয়ার পরে চাচা রবিউল ইসলাম তার ভাতিজি সানজিদার রুমে প্রবেশ করে তাকে ধর্ষনের চেষ্টা করে। কিন্তু সানজিদা রাজি না হওয়ায় তাকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার পর চাচা পালিয়ে গেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। আজ বুধবার (৯ জুন) সকালে সানজিদাকে ডাকতে গিয়ে বিচানায় তার মৃতদেহ দেখতে পায় পরিবারের লোকজন। পড়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ভাতিজির লাশ উদ্ধার করে। কিন্তু চাচাকে কোথায়ও খোঁজে পাওয়া যায়নি। এব্যাপারে জগন্নাথপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোছলেহ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন- প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে সানজিদা বেগমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তার গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে। তবে এঘটনার পর থেকে চাচা রবিউল ইসলামকে খোঁজে পাচ্ছে না। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ