,


শিরোনাম:
«» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ। «» শিবগঞ্জে অস্ত্র ও ককটেল সহ ১৩ মামলার আসামি গ্রেপ্তারে র‍্যাব «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স সম্পন্ন «» ফরিদগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,অভিযুক্ত যুবক আটক «» মুহাম্মদ স: কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে তুরাগ ও উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অনুষ্ঠিত। «» দুই সন্তান নাজমুল ও সুপারেশ কর্তৃক বৃদ্ধা মা লাঞ্ছিত” থানায় অভিযোগ «» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল।

ইয়াস মোকাবিলায় সেন্টমার্টিনে প্রস্তুত আইন শৃংখলা বাহিনী

নুরুল আলম,টেকনাফঃ প্রতিনিধি ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের আঘাত থেকে মানুষের জানমাল ও প্রাণিসম্পদ নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও রক্ষায় সাগরে বুকে প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে শেষ সীমানা প্রস্তুত রয়েছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী। পাশাপাশি সাধারণ জনতা কে নিরাপদে থাকতে মাইকিং করে সর্তক থাকার জন্য বিশেষ ভাবে ঘোষণা করা গেল এছাড়া টেকনাফের উপকূল শাহপরীর দ্বীপে মধ্যম সীমানা বিশেষ নজরদারী রয়েছে। এই দুর্যোগে উপজেলায় আশ্রয়কেন্দ্রসহ প্রায় শতাধিক আবাসিক হোটেল- প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সোমবার (২৪ মে) সন্ধ্যায় সেন্টমার্টিনের বিষয়ে জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ মামুনুর রশিদ আইনশৃঙ্খলালবাহিনীসহ প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি জুম আলোচন করেছেন বলে জানিয়েছেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ পারভেজ চৌধুরী।২৫ মে আলোচনাতে দ্বীপকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে বলেন কিন্তু দুঃখ নিউ না সরাসরি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে আল্লাহ তাআলা দরবারে নালিশ করে ন ও আল্লাহ রহমতে শেষমেষ সম্মান রাখবে নিরাপত্তা ব্যবস্থা করে দেবে ইনশাআল্লাহ আল্লাহ তাআলা চারা কোনো মাহাবুব নেই।. ইউএনও পারভেজ চৌধুরী প্রায় বলেন, ‘সাগরের বুকে জেগে উঠা বিচ্ছিন্ন দ্বীপ সেন্টমার্টিনকে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। যেহেতু দ্বীপের দশ হাজারের বেশি বসতি রয়েছে। তাছাড়া আমাদের থেকে সেটি বিচ্ছিন্ন। তাই দুর্যোগ মোকাবিলায় দ্বীপের জন্য আমাদের নৌবাহিনীও প্রস্তুত রয়েছে।ও দ্বীপে বিজিবি, পুলিশ, কোস্টগার্ড সদস্যরা সর্তক অবস্থানে রয়েছেন।’ এর মাঝে বলেন, ‘ইতোমধ্যে সেন্টমার্টিন ও শাহপরীর দ্বীপে আবাসিক হোটেলসহ অর্ধশতাধিক আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। বিশেষ করে দুই দ্বীপের (সেন্টমার্টিন-শাহপরীর দ্বীপে জনগণের নিরাপত্তা জন্য মাইকিং করে সর্তক বার্তা জানিয়েছেন। অবস্থা অবনতি হলে প্রয়োজনে তাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, স্বেচ্ছাসেবী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতায় সংস্থার আশ্রয়কেন্দ্র নিয়ে যাওয়া হবে। বিশেষ করে দ্বীপের লোকজন যাতে আশ্রয় নিতে পারে সেজন্য পর্যাপ্ত ত্রাণ সামগ্রী ও স্কুল, আবহাওয়া অফিস, ডাকঘর, হোটেলগুলো খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছি খবর এদিকে আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত বিশেষ সতর্কবার্তায় বলা হয়, পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগরে এবং এর আশপাশের এলাকায় সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড় ইয়াস দুপুর পর্যন্ত প্রায় একই এলাকায় অবস্থান করছিল। এটি দুপুরে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ৬৮৫ কিলোমিটার থেকে কিছুটা এগিয়ে ৬৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থান করছে। কক্সবাজার থেকে ৬৯৫ কিলোমিটার থেকে ৬০৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে এগিয়েছে। কিন্তু মোংলা ও পায়রা থেকে একই দূরত্বে আছে এখনও। মোংলা বন্দর থেকে ৬৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রাবন্দর থেকে ৬০৫ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছে। দ্বীপের বাসিন্দা আবদুল মালেক বলেন, বিকাল থেকে দ্বীপে বাতাসের বেগ বেড়েছে। ঘূর্ণিঝড় আসলে দ্বীপের বসত ঘরে নির্ঘুম রাত কাটে। কেননা সাগরের মাঝে আমাদের বসতি। এছাড়া আগের তুলনায় দ্বীপের অবস্থা ভালো না। সাগরে সামান্য পানি বাড়লে দ্বীপের চারদিক ডুবে যায়। শুনেছি ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস বড় ধরনের শক্তিশালী। তাই আমার মতো দ্বীপের সব স্হানীয় জন সংখ্যা ভয়ে আছেন। সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ বলেন, ‘দ্বীপের লোকজনকে সরিয়ে নেওয়ার সেই পরিস্থিতি এখনও হয়নি। তবে অন্যদিনের তুলনায় সাগরের পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। দ্বীপবাসীদের সর্তক থাকতে বিকাল থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। তাছাড়া দ্বীপের দ্বিতীয় তলা হোটেল পরিচালক কে অবগত করানো হলো ও সব প্রস্তুত রাখা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘ইউনিয়ন পরিষদের একটি দল রেডক্রিসেন্টের লোকজন ও দ্বীপে দায়িত্ব থাকা বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সর্তক অবস্থানে রয়েছে। অবস্থা খারাপ হলে প্রয়োজনে দ্বীপের সবাইকে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হবে।’ অন্যদিকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন রুটে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ