,


শিরোনাম:
«» ক্ষতিগ্রস্ত ৩৩ দোকান মালিকরা পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান «» যৌতুক না পেয়ে নির্যাতনের অভিযোগ, গৃহবধূকে মারধর «» তুরাগে ১৫০টি দোকানের বিদ্যুৎ বিল মাসে ৭০০ টাকা দেখিয়ে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎকারী নামধারী নেতা গ্রেফতার। «» তুরাগে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু «» তুরাগে ২ বছরের শিশু ধর্ষণ : ধর্ষক মামুন আটক। «» ইদ-ই-মিলাদুন্নবি উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে স্বপ্নালোড়ন বাংলাদেশ «» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা।

ছাতকে শশুর কর্তৃক ধর্ষনের চেষ্টা থানায় পুত্রবধূূর অভিযোগ

সেলিম মাহবুব,ছাতকঃ ছাতকে শশুর কর্তৃক পুত্রবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে পুত্রবধূ। গতকাল বৃহস্পতিবার ভিকটিম পুত্রবধু বাদী হয়ে শশুর সালাম মিয়ার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ দায়ের করে। এদিকে ঘটনা পর থেকে লম্পট শশুর সালাম মিয়া আত্মগোপনে রয়েছে। অভিযোগ থেকে যানা জায়, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম ইসলামপুর ইউনিয়নের লম্বাকান্দি গ্রামের জালাল মিয়ার কন্যার সাথে ছাতকের নোয়াকোট গ্রামের সালাম মিয়ার পুত্র সালি আহমদের বিয়ে হয় ২০১৮ সালে। ঘটনার দিন ভিকটিমের স্বামী গাড়ি চালক সালি মিয়া বাড়িতে ছিল না। এ সুযোগে ওই রাতে ঘুমন্ত পুত্রবধূকে ধর্ষনের চেষ্টা চালায় লম্পট শশুর। এক পর্যায়ে ভিকটিমের ঘুম ভেঙ্গে গেলে তার বিছানায় শশুরকে দেখতে পেয়ে চিৎকার করথে থাকে সে। এসময় শশুর তার লালসা চরিতার্থ করতে মুখ চেপে জোরপূর্ব ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। অবশেষে পুত্রবধূর আত্ম চিৎকারে ব্যর্থ হয়ে লম্পট শশুর তার কক্ষে ত্যাগ করে চলে যায়। পরদিন সকালে তার স্বামী বাড়ি ফিরলে বিষয়টি অবহিত করে সে। কিন্তু স্ত্রীর কথা বিশ্বাস না করে উল্টো স্ত্রীকে দায়ী করে ঘর থেকে বের করে দেয়। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয় একটি পক্ষ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে আপোষে নিস্পত্তির চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় জড়িত লম্পট সালাম মিয়া ও স্বামী সালি আহমদের শাস্তি দাবী করেন ভিকটিম। এ ব্যাপারে ছাতক থানার ওসি শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, এমন একটি অভিযোগ তিনি পেয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ