,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

রাজধানীতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য তৈরীঃ৩টি বেকারীকে ৬ লক্ষ টাকা জরিমানা

এস,এম,মনির হোসেন জীবনঃ অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাদ্য দ্রব্য তৈরী ও বিক্রি করার দায়ে রাজধানীর মোহাম্মদপুর, হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীরচর পৃথক থানা এলাকায় ৩টি বেকারীকে ছয় লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত। র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পলাশ কুমার বসু এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-২) এর এএসপি আবদুল্লাহ আল মামুন আজ বৃহস্পতিবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিওিতে র‌্যাব-২ এর উদ্যোগে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পলাশ কুমার বসু’র পরিচালনায় এবং বিএসটিআই এর সহায়তায় আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২ টা শুরু করে বিকেল সাড়ে ৪ টা পযর্ন্ত রাজধানীর মোহাম্মদপুর, হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীরচর পৃথক তিনটি থানা এলাকায় ৩ টি বেকারীতে র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানকালে আলিফ বেকারী, মোহাম্মদপুর, রানা ব্রেড এন্ড বিস্কুট ফ্যাক্টরি, হাজারীবাগ, ও জনপ্রিয় বেকারী, কামরাঙ্গীরচর কারখানায় অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাদ্য পণ্য উৎপাদন, মেয়াদ উর্ত্তীণ পণ্য মজুদ ও বাজারজাত করে আসছিল। পরে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পলাশ কুমার বসু’র পরিচালনায় উক্ত আদালত বিভিন্ন অপরাধের প্রেক্ষিতে আলিফ বেকারীকে ১ লক্ষ, রানা ব্রেড এন্ড বিস্কুট ফ্যাক্টরিকে ৩ লক্ষ ও জনপ্রিয় বেকারীকে- ২ লক্ষ টাকাসহ ৩টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৬ লক্ষ টাকা জরিমানা করে র‌্যাব-২ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত। র‌্যাব-২ সুএে জানা গেছে, সম্প্রতি রাজধানী ঢাকাসহ পার্শ্ববর্তী জেলা শহরের বিভিন্ন স্থানে কিছু অসাধু ব্যক্তি অতি মুনাফার লোভে তাদের প্রতিষ্ঠানে বিএসটিআই অনুমোদন ছাড়াই মেয়াদোত্তীর্ণ কেমিক্যাল এবং অননুমোদিত রং ব্যবহার করে বিভিন্ন ভেজাল পণ্য উৎপাদন, অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাদ্য দ্রব্য তৈরী, বিক্রয় ও সংরক্ষন করছে। এসকল প্রতিষ্ঠানকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে র‌্যাবের একটি বিশেষ দল গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ