,


শিরোনাম:
«» ক্ষতিগ্রস্ত ৩৩ দোকান মালিকরা পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান «» যৌতুক না পেয়ে নির্যাতনের অভিযোগ, গৃহবধূকে মারধর «» তুরাগে ১৫০টি দোকানের বিদ্যুৎ বিল মাসে ৭০০ টাকা দেখিয়ে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎকারী নামধারী নেতা গ্রেফতার। «» তুরাগে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু «» তুরাগে ২ বছরের শিশু ধর্ষণ : ধর্ষক মামুন আটক। «» ইদ-ই-মিলাদুন্নবি উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে স্বপ্নালোড়ন বাংলাদেশ «» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা।

পটুয়াখালীতে ডাক্তার ও তার ছেলের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলা

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালী সদর উপজেলার মাদারবুনিয়া ইউনিয়নে ডাক্তার মোতাহার হোসেন ভদ্দর এর বিরুদ্ধে অবৈধভাবে সরকারি খাল দখল করা, ছেলে দিয়ে বাহিনী তৈরি করে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ, চাঁদাবাজি সহ নানান অভিযোগ উঠেছে। জানাগেছে মাদারবুনিয়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড মাদারবুনিয়া বাজারে গত ২৪-এপ্রিল ডাক্তার ভদ্দরের নেতৃত্বে তার ছেলে তুহিন স্থানীয় ও বহিরাগত সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে হামলা চালিয়ে তিন জনকে আহত করে।এসময় দুটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন ও টাকা পয়সা ছিনতাই এর ঘটনা ঘটায়।এনিয়ে ঐদিন পটুয়াখালী সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তরা হলো, (১). মোতাহার হোসেন ভদ্দর (৫৮), (২). তুহিন সিকদার (২৫), পিতাঃ মোতাহার হোসেন ভদ্দর, (৩). আল-আমিন সিকদার (৩৮), পিতাঃ আব্দুল খালেক সিকদার, (৪). ফারুক সিকদার (৫৫), পিতাঃ মৃত আঃ রহমান সিকদার, (৫). আব্দুল খালেক সিকদার (৪৮), পিতাঃ মৃত মুনসুর আলী সিকদার, (৬). খালেক সিকদার (৫৫), পিতাঃ মৃত কেরামত আলী সিকদার সহ অজ্ঞাত। অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, একটি কুচক্রী মহলের লোকজন মাদারবুনিয়া ইউনিয়নের ছোইলাবুনিয়া সরকারি খালে অবৈধভাবে বিভিন্ন স্থানে বাঁধ প্রদান করে ব্যাক্তি সার্থে মৎস্য চাষ করছে দীর্ঘদিন আর এর নেতৃত্বে রয়েছেন ডাক্তার মোতাহার হোসেন ভদ্দর ও তার ছেলে তুহিন সিকদার।স্থানীয় কৃষি আবাদে সমস্যা হওয়ায় এলাকায় সাধারন জনগন বাঁধ কেটে দিয়ে খাল উন্মুক্ত করে দেয়।এরই জের ধরে গত ২৪ এপ্রিল সকাল ৯ টার সময় মাদারবুনিয়া বাজারে তুহিন সিকদার তার বাহিনী মিলে দেশীয় অস্ত্র রামদা, বাংলা দাও, লোহার রড হকিষ্টিক নিয়ে হামলা চালায়। এসময় সন্ত্রাসীরা তিন জনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। আহতরা হলেন, আব্দুল্লাহ আল-মামুন সিকদার (৩৬), ফেরদৌস সিকদার, উভয় পিতাঃ সোবাহান সিকদার ও মিজানুর সিকদার, পিতাঃ আবুল কাশেম সিকদার।পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে আহত অবস্থায় পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করেন বর্তমানে আহতরা চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভর্তি রয়েছেন। এবিষয়ে আহতরা বলেন, কোন কিছু বুজে ওঠার আগেই ১০-১২ জন মিলে আমাদের এলোপাতাড়ি ভাবে পেটাতে থাকে এতে আমরা গুরুত্বর জখম হয়ে মাটিতে পড়ে যাই তখন সন্ত্রাসীরা আমাদের পেটাতে থাকে এবং আমাদের সাথে থাকা মোবাইল ফোন টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়।আমাদের ডাকচিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করে।তারা বলে সরকারি খাল দখল করে রাখায় এলাকার কৃষি আবাদ, জলাবদ্ধতা, খেরকুটা আনা নেয়া সহ নানাবিধ সমস্যার কারনে এলাকাবাসী বাঁধ আংশিক কেটে দেয় এবং বাঁধের উপরে আমাদের গাছ লাগানো ছিলো তা কেটে নিতে বলে আমরা গাছ কেটে নিয়েছে বলেই পরিকল্পিত ভাবে আমাদের হত্যা করার উদ্দেশ্যে এই হামলা চালানো হয়েছে।এবিষয়ে আহত আব্দুল্লাহ আল-মামুন বাদী হয়ে আইনের সহযোগিতার জন্যে সদর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন। এব্যাপারে অভিযুক্ত ব্যাক্তি ডাক্তার মোতাহার হোসেন ভদ্দর তার ছেলে তুহিন সহ সকলের সঙ্গে মোবাইল ফোন ও বিভিন্ন মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করে ও তাদের পাওয়া যায়নি। এবিষয়ে পটুয়াখালী সদর থানার ওসি আকতার মোর্শেদ বলেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে তারা অপরাধী প্রমান মিললে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানান।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ