,


শিরোনাম:
«» ক্ষতিগ্রস্ত ৩৩ দোকান মালিকরা পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান «» যৌতুক না পেয়ে নির্যাতনের অভিযোগ, গৃহবধূকে মারধর «» তুরাগে ১৫০টি দোকানের বিদ্যুৎ বিল মাসে ৭০০ টাকা দেখিয়ে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎকারী নামধারী নেতা গ্রেফতার। «» তুরাগে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু «» তুরাগে ২ বছরের শিশু ধর্ষণ : ধর্ষক মামুন আটক। «» ইদ-ই-মিলাদুন্নবি উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে স্বপ্নালোড়ন বাংলাদেশ «» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা।

“আলো জেনারেল হাসপাতালে “প্রসুতি মায়ের ভুল অপারেশনে মৃত্যু

ঈশ্বরদী প্রতিনিধিঃ ঈশ্বরদী হাসপাতাল রোডে আভিজাত্য “আলো জেনারেল হাসপাতালে “প্রসুতি মায়ের ভুল অপারেশনে মৃত্যু হয়েছে। প্রসুতি মায়ের অপারেশন পরিচালনা করেছেন ঐ হাসপাতালের সক্তাধীকারক ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম ও তার স্ত্রী ডানা বেগম। ঈশ্বরদী অরোনখোলা রোডের বহরপুর এলাকায় বসবাসকারী বিপ্লভ হোসেনের সাথে সাক্ষাৎকারে জানা গেছে (গত ২১ শে এপ্রিল) রাত আনুমানিক ৯টার দিকে তার স্ত্রী পারুল বেগম কে হাসপাতাল রোডে “আলো জেনারেল হাসপাতালে” নিয়ে যায়। সেখানে স্ত্রী পারুল বেগম কে সেজার করার সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলাপ আলোচনা হয়। ৯ হাজার টাকা চুক্তির বিনিময়ে পারুল বেগম কে সেজার করবে বলে কথাবার্তা শেষ হতে না হতেই ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম ও তার স্ত্রী ডানা বেগম, (পারুল বেগম) কে অটি রুমে নিয়ে তরিঘড়ি করে সেজার করে। একটি পুত্র সন্তান কোলে করে প্রসুতি মা’কে রেখে সদ্য ভূমিষ্ঠ বাচ্চা তার বাবা মোঃ বিপ্লব হোসেনের কাছে নিয়ে আসে। তার বাবা জানতে চায় আমার স্ত্রী পারুল বেগম কেমন আছে ? এসময় ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম ও তার স্ত্রী ডাক্তার ডানা কৌশলে দ্রুত হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায় বলে মৃত্যু পারুল বেগমের স্বামী বিপ্লব হোসেন প্রতিবেদককে জানিয়েছেন। এদিকে এই ঘটনা জানাজানি হলে “আলো জেনারেল হাসপাতালে “লোকজন সমাগম ঘটতে থাকে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে “আলো জেনারেল হাসপাতালের” অন্যান্যরা দ্রুত মৃত্যু পারুলের লাশ গাড়ীতে তুলে দেয়। রাতের অন্ধকারে পুলিশের কোন ঝামেলা না পোহাতে হয় সেই জন্য। আলো জেনারেল হাসপাতালে সেজারের যে ৯ হাজার টাকা চুক্তি হয়েছিল তা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গ্রহন করেননি বলেও মৃত্যু পারুলের স্বামী জানান । এদিকে এই ঘটনা টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম তার নিকটতম আত্বীয় স্বজনদের মাধ্যমে মৃত্যু পারুল বেগমের শ্বশুরকূলের লোকজন কে ধরপাকড় করে কোন রকম ঝামেলা এড়িয়ে মৃত্যু পারুলের লাশ পোষ্ট মর্টেম ছাড়াই দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। এদিকে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রধান ডাক্তার আছমা খান এর সাথে কথা বললে তিনি জানান ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম একজন অজ্ঞানের ডাক্তার তিনি অপারেশন করতে পারেন না। যদি অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে করতে পারেন। তবে এইটা তিনি অপারেশন করেন নি। এটি করেছে তার স্ত্রী নিজেই ডানা। এ ব্যাপারে “আলো জেনারেল হাসপাতালের” স্বত্বাধিকারক ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম এর সাথে তার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায। উল্লেখ্য ইতিপূর্বেও ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম একাধিক ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু ঘটিয়েছেন।সে সমস্ত মৃত্যু রোগীর পরিবার কে মোটা অংকের অর্থ জরিমানা দিয়েছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। অপরদিকে এই এই ডাক্তার শরিফুল ইসলাম শামীম যখনি এমন ঘটনা ঘটায় তখন থেকেই তিনি তার ব্যাক্তিগত ফোন নাম্বার টি বন্ধ রেখে দেন কিছু দিন। ঝামেলা শেষ হলে পুনরায় তাঁর ব্যাক্তিগত নাম্বার টি সচল করেন বলে অনেকেই জানান।
Seen by Tahsan at Friday 17:55
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ