,


শিরোনাম:
«» সাংবাদিক মাজহারুল ইসলাম এর পক্ষ থেকে পটুয়াখালীর সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা «» পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ক্রাইম নিউজ ঢাকার সম্পাদক ও প্রকাশক মোঃ সাইফুল ইসলাম (একা) «» ইয়াবা ব্যবসায় চাঙ্গা সাবরাং নয়াপাড়ার জামাই আনসারুল ও শাশুড়ি তৈয়ুবা সিন্ডিকেট «» টেকনাফে সীমন্তে মালয়েশিয়াগামী ১৮ রোহিঙ্গাসহ দুই দালাল আটক «» মসজিদের ইমাম সাহেবদের ঈদ সামগ্রী বিতরন করেন আঃ আজিজ সরদার «» ছাতকে সুরমানদী খনন উদ্বোধনে-এমপি মানিক «» ডোর ক্লোজার এর ভিতর থেকে ৩ কেজি ২৫০ গ্রাম সোনা উদ্ধার «» ছাতকে ওড়না পেছানো অবস্থায় স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার «» রাজধানীতে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্যসহ তিন ব্যক্তি গ্রেফতার «» চকবাজার থেকে বিপুল সংখ্যক বিস্ফোরক দ্রব্যসহ দুই ব্যক্তি গ্রেফতার

লকডাউনেও থেমে নেই ৫২নং ওয়ার্ড ময়লার মোড় ট্রাফিক পুলিশ বক্সের টিআই এর চাঁদাবাজি

স্টাফ রিপোর্টার ক্রাইমঃ রাজধানী উত্তরের  ৫২নং ওয়ার্ড সোনারগাঁও জনপথ রোডের ময়লার মোড় চৌরাস্তা কদমতলা ট্রাফিক বক্সের টি আই জহুরুলের বেপরোয়া চাঁদাবাজীতে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী, গতকাল সোমবার সকাল আনুমানিক সকাল ১১: ৩০ মিনিটের সময় কয়েকজন সংবাদ কর্মী ময়লার মোড় হয়ে খালপাড় যাওয়ার পথে ময়লার মোড় কদমতলা ট্রাফিক পুলিশ বক্সের পাশে বসেই একজন অটোরিকশা চালক হাউমাউ করে কাঁদতে দেখা যায়।

সংবাদকর্মীরা কান্নার বিষয়টি জানতে চাইলে আটককৃত অটোরিকশা চালক জানান লকডাউনের কারণে এতদিন রিক্সা নিয়ে সড়কে বের হওয়া সম্ভব হয়নি। তবে গতকাল রবিবার রাতে বাবা-মা স্ত্রী-সন্তানসহ রাতে না খেয়ে বাধ্য হয়ে রিকশা নিয়ে সড়কে নেমেছি তবে ১৩৫ টাকা ভাড়া মারতে না মারতেই
সার্জেন্ট বাহারউদ্দীনের হাতে আটক হতে হয়।
কিছু বুঝতে না পেরে ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ সদস্যদের হাতে পায়ে ধরতে শুরু করলে একপর্যায়ে পুলিশের টি আই জহুরুল আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল সহ আমার বুকে একটি লাথি মেরে বক্সের ভেতর বসে থাকে।

একপর্যায়ে বাধ্য হয়ে রিক্সা মালিকের কাছ থেকে ৫০০ টাকা ধার করে এনে পুলিশের হাতে দিলে আমাকে সহ বাকি আটককৃত ৮ থেকে ১০ জন রিকশা চালক থেকে ৪০০ টাকা করে নিয়ে চলে যেতে বলে। এসময় উপস্থিত সংবাদ কর্মীরা ঘটনার সত্যতা যাচাই এর জন্য ঘটনাস্থল সহ আশপাশের লোকজনের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তারা বলেন মারধর সহ রেকার বিলের নামে প্রতিদিন প্রতারণা চালকদের কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণ করে থাকে গরিব মানুষ বা ক্ষমতার অভাবে প্রতিবাদ করার ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও  অদৃশ্য মনের ভেতর কষ্ট রেখে নিরবে চুপ থাকতে হয়।

অটোরিকশা চালককে মারধরের বিষয়টি জানতে চাইলে টি আই জহুরুল সঠিক কোন উত্তর দিতে পারেনি, অবশেষে রিকশা প্রতি ৪০০ টাকা করে নেওয়ার বিষয়টি এড়িয়ে যেতে পারেনি চৌরাস্তা কদমতলা ট্রাফিক পুলিশ বক্সের টিআই জহুরুল। অনুসন্ধান চলমান।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ