,


শিরোনাম:
«» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ। «» শিবগঞ্জে অস্ত্র ও ককটেল সহ ১৩ মামলার আসামি গ্রেপ্তারে র‍্যাব «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স সম্পন্ন «» ফরিদগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,অভিযুক্ত যুবক আটক

ক্ষতিগ্রস্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আইজিপি, লোকজনকে মামলা করার পরামর্শ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া,স্টাফ রিপোর্টারঃ

ধ্বংশস্তুপে পরিনত ব্রাহ্মণবাড়িয়া!!!

পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ বৃহস্পতিবার দুপুরে হেফাজতের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তন পরিদর্শন করেন প্রথম আলোসহ একাধিক সংবাদ মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকদের তাণ্ডবে পুড়ে যাওয়া ধ্বংসযজ্ঞ পরিদর্শন করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। ০১/০৪/২০২১খ্রি. আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে তিনি এসব স্থাপনা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেন। এ সময় ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের উদ্দ্যেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা মামলা করেন। ভয় পাবেন না। যা হয়েছে, সবই জঙ্গি কর্মকাণ্ড। যারা ধ্বংস করেছে, তাদের চিহ্নিত করতে হবে।’

দুপুর পৌনে ১২টায় বেনজীর আহমেদ হেলিকপ্টারে করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিয়াজ মুহাম্মদ স্টেডিয়ামে আসেন। সেখান থেকে তিনি হেফাজতের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা, বঙ্গবন্ধু স্কয়ার, সুরসম্রাট দ্য আলাউদ্দিন সংগীতাঙ্গন, সদর উপজেলা ভূমি কার্যালয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব, আনন্দময়ী কালীবাড়ি মন্দিরসহ বেশ কয়েকটি ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠান ও স্থাপনা পরিদর্শন করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব পরিদর্শন শেষে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রহিম গত ২৬-২৮ মার্চ ঘটনার বর্ণনা দেন। এ সময় বেনজীর আহমেদ জেলার বাসিন্দাদের উদ্দ্যেশে বলেন, ‘আপনারা ভয় পাবেন না। আপনারা একা নন। ১৮ কোটি মানুষ আপনাদের সঙ্গে আছেন। দেশের আইন আপনাদের সঙ্গে আছে। আমরা দিনের ভিডিও ফেসবুকে দিয়েছি। আপনাদের কাছে স্থির চিত্র (ছবি) ও ভিডিও থাকলে দিয়ে দেন। এদের চিহ্নিত করার সময় এসেছে। প্রতিবছরই চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নৃশংস ঘটনা ঘটে ও তাণ্ডব হয়। আমরা কি ৫০ বছর পেছনে ফিরে গেলাম?’!

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ