,


শিরোনাম:
«» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ। «» শিবগঞ্জে অস্ত্র ও ককটেল সহ ১৩ মামলার আসামি গ্রেপ্তারে র‍্যাব «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স সম্পন্ন «» ফরিদগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,অভিযুক্ত যুবক আটক «» মুহাম্মদ স: কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে তুরাগ ও উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অনুষ্ঠিত। «» দুই সন্তান নাজমুল ও সুপারেশ কর্তৃক বৃদ্ধা মা লাঞ্ছিত” থানায় অভিযোগ «» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল।

৪ মাদক ব্যবসায়ীর দখলে লোকাসেড বড়োই বাগান

ঈশ্বরদী প্রতিনিধিঃ প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্স ঘোষনা দেওয়ার পর সারাদেশে প্রশাসনের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তারা নড়ে চড়ে বসেন। শুরু হয় দেশ ব্যপি মাদক বিরোধী অভিযান। পুলিশ, ডিবি ও র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে অনেক মাদক ব্যবসায়ী। বর্তমানেও মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলমান রয়েছে। সম্প্রতী ঈশ্বরদী শহরের মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান ঝিমিয়ে পড়ায় আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে মাদকের গড ফাদারা ও মধ্যম ব্যবসায়ীরা। ঈশ্বরদী শহরের জুড়ে এমন কোন এলাকা নাই যেখানে মাদকের ব্যবসা নাই। ঈশ্বরদী থানাধীন লোকোসেড এলাকায় মাদক মামলার আসামী ও ফেন্সিডিলের ও গাজার ডিলার হাসান, বুতলা,মানিক ও নয়ন লোকোসেড বড়োই বাগানের এলাকার ভাইরাস। পুলিশ, ডিবি পুলিশের হাতে এরা কতবার আটক হয়েছে । হাসানও নয়নের নামে মাদকের মামলাও আছে । এরা আটক হয় আবার জেল থেকে বের হয়ে এসে পূণরায় শুরু করে গাজা, ইয়াবা ও ফেন্সিডিলের পাইকারী ও খুচরা ব্যবসা। এদের মাদক ব্যবসা বন্ধের বিষয়ে বলবে এমন সাহস ওই এলাকার কারো নাই। প্রকাশ্যে বলে কতবার পুলিশ ধরবে ধরুক, মাদক ব্যবসা ছাড়া যাবেনা। এদের কাছে অসহায় ওই এলাকার বাসিন্দারা। তাঁরা চান এদের স্থায়ী ব্যবস্থা। যাতে তারা আর মাদক ব্যবসা না করে।এই ব্যাপারে প্রতিবেদক সরেজমিনে গেলে এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী আমাদের জানায় ও দেখান তারা ভাঙ্গের গাছ ও গাঁজার গাছ চাষ করছে দীর্ঘদিন যাবত তারা আরো বলেন এইসব গাঁজার গাছ ও ভাঙের গাছে নেপথ্যে রয়েছে হাসান কুখ্যাত বিখ্যাত মাদকের ডিলার । আর তাই মাদকের বড়বড় চালান তুলতেও এদের কোন অসুবিধা নাই। যত টাকার গাজা লাগবে বাঁকিতে দিচ্ছে হাসান। এই ব্যাপারে হাসানের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তার স্ত্রী জানান , সে গাঁজা সেবন করে ও ১-২ পোটলা বিক্রি করে এই ব্যাপারে ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মোঃ আসাদুজ্জামান হক মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি প্রতিবেদককে বলেন মাদকের বিরুদ্ধে ব্যপক অভিযান,চলমান রয়েছে মাদকের সাথে কোন আপস নাই। ছাড় দেয়া হবেনা কোন মাদক ব্যবসায়ীকেই।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ