,


শিরোনাম:
«» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল। «» আবদুল আউয়াল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» তুরাগ বাসীসহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার ডিলারদের অনিয়মে জিম্মি কৃষক ও চাষিরা «» ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে গাড়ির চাপায় সাবেক পুলিশ সদস্য নিহত «» চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান এমপি হাবিব হাসান। «» মশার অসহ্যকর যন্ত্রণায় তিক্ত তুরাগবাসী, দায়িত্বশীলরা বলছেন অসহায়ত্বের কথা «» তুরাগে মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর বস্তিবাসীর হামলা। 

মসজিদ ও মাদরাসাকে কেন্দ্র করে মারামারিতে আহত ০৭

 গোলাম কিবরিয়া পলাশঃ ইতিহাসের বর্বরোচিত হামলার শিকার সিরতা ইউনিয়নের যুবলীগ এর সিনিয়র সহ-সভাপতি বুলবুল আহমেদসহ আপন বড় ভাই মকরুজুল ইসলাম মকুল ও সিরতা ইউনিয়নের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোকছেদুল মোমিন সবুজ সহ তাঁর পরিবার। ঘটনাটি ঘটে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার ৫নং সিরতা ইউনিয়নের সিরতা নয়াপাড়া এলাকায়। মসজিদ ও মাদরাসাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষে মারামারির ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, গত ০৫ মার্চ ২০২১ খ্রিঃ রোজঃ শুক্রবার সিরতা নয়াপাড়া বাজারের জামে মসজিদের ভিতর জুমার নামাজ শেষে দু’পক্ষই সংর্ঘষে লিপ্ত হয়। এতে হতাহতের ঘটনা তেমন ছিলোনা। কিন্তু জুমার নামাযের পর ২.৩০ মিনিটে যুবলীগ নেতা বুলবুল এর আপন ভাই মকরুজুল ইসলাম মকুল (৩৮) পিতাঃ মোঃ লোকমান হেকিমকে একই দিনে গরু বিক্রি করে বাড়ি আসার সময় নয়াপাড়া সালুর মোড়ের পাকা রাস্তার উপরে পথরোধ করে শাহজাহান ও মোখলেছ বাহিনী। মকুল পেসায় ডেইরি ফার্ম ব্যবসায়ী। মকুল বলেন, আমি যখন গরু বিক্রি করে টাকাসহ সালুর মোড় পাকা রাস্তার উপরে পৌঁছলাম। ঠিক এ সময় ১.শাহজাহান মিয়া ২. মোখলেছুর রহমান ৩. আব্দুস সালাম ওরফে সালু ৪. হারুন মিয়া ৫. আজাহারুল ইসলাম ৬. আজিজুল হক ৭. আঃ মজিদ ৮. আকবর আলী ৯. মোফাজ্জল হোসেন ১০. রফিকুল ইসলাম ১১. তৈয়ব আলী ১২. মোশাররফ হোসেন গংসহ আরও কয়েকজন মারত্মক অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হইয়া বেআইনি ভাবে জনতাবদ্ধে আমার উপরে অতর্কিত হামলা শুরু করে। উনি আরও বলেন আমার গরু বিক্রির ৫০০০০০/- (পাঁচ লক্ষ টাকা) ও আমার মটর সাইকেল ছিনিয়ে নিয়ে যায়। যার মূল্য ১২০০০০/- একলক্ষ বিশ হাজার টাকা। এবং আমার একটি এন্ড্রয়েড ফোন সেটটি জোরপূর্বক ছিনিয়ে নিয়ে ভেঙ্গে ফেলে যার মূল্য ৭৯.০০০/- উনাশি হাজার টাকা।

এ ঘটনায় মকরুজুল ইসলাম মকুল বাদী হয়ে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে যার মামলা নংঃ-২৯। মকুলকে মারাত্মক ভাবে আঘাত করে তার হাত ভেঙ্গে ফেলে। মাথাসহ শরীর বিভিন্ন জায়গায় এলোপাতাড়ি আঘাত করে। এমনকি কোমড়ে আঘাত করার দরুন উঠে চলাফেরা করতে কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। এলাকার লোকজন এসে পড়ায় এইভাবেই রাস্তার উপরে ফেলে রেখে সংঘবদ্ধভাবে শাহজাহান ও মোখলেছ গং পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পরপরই গত ০৬ মার্চ শনিবার সকালে শাহজাহান ও মোকলেছ গং দল সংঘবদ্ধ হয়ে অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ছাত্রলীগ নেতা মোখছেদুল মোমিন সবুজ এর বাড়িতে হামলা করে। সবুজ এর মা” সাক্ষী দেয়ার কারণে সবুজ এর বাড়িতে হামলার ঘটা ঘটে। এ ঘটনায় সবুজের বাবা শাহজাহান কবির ও সবুজের ৩য় শ্রনি পড়ুয়া বাকপ্রতিবন্ধী বোন মারাত্মক ভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়। সবুজের বাবা ও মা বলেন আমার বাড়িতে অতর্কিত হামলা করে লুটপাট করে আমার ঘরের আলমারিতে রাখা নগদ ৩০০০০০/- (তিন লক্ষ টাকা) ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় এখনো কোন মামলার বিষয় জানা যায়নি। এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা বুলবুল আহমেদ ও ছাত্রলীগ নেতা মোখছেদুল মোমিন সবুজ এর কাছে জিজ্ঞাসা করলে জানা যায়, ৫ ও ৬ মার্চ দু দিন মারামারিতে প্রায় ৭ জন আহত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে। প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করে উনারা আরও বলেন সঠিক তদন্ত করে দোষীদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবীও জানান।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ