,


শিরোনাম:
«» গলাচিপা থেকে ৫ জলদস্যুকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব «» সড়ক হতে হকারদের উচ্ছেদের প্রতিবাদে উত্তরায় বিক্ষোভ «» উত্তরায় পুলিশের সোর্স পরিচয়ে পকেট মাইর ও ছিনতাইকারী চক্র «» ঈশ্বরদীতে জয়ী-পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ১৫ «» ভাড়া নিয়ে বাড়াবাড়ি করে শিক্ষার্থীকে চাকার নিচে ফেলে হত্যা;একাধিক বাসে আগুন «» তুরাগে গার্মেন্টসকর্মীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী সোহেল রানা পলাতক। «» উত্তরা প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ «» উত্তরা প্রেসক্লাবের সুষ্ঠু নির্বাচনে যৌথ সভাপতি নির্বাচিত,যোগ্যরাই এসেছেন ১৩ সদস্যের কমিটিতে «» অসামাজিক কার্যকলাপ ও মাদকের রাজ্যে পরিণত হয়েছে তুরাগ। «» টেকনাফের শিশু কন্যা গ্রহণ করে নিলেন বদি, টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জন্ম নেওয়া শিশু সন্তানের দায়ভার তার

স্রষ্টা ও সৃষ্টি পর্ব -৩

হযরত মাওলানা মুফতি রহমত উল্লাহ্,ধর্ম বিষয়ক সম্পাদকঃ এসো ভাই বোনেরা! আমরা আল্লাহর কথা বলি, আল্লাহর কথা শুনি। আমরা আমাদের স্রষ্টা আল্লাহ কে চিনি, আল্লাহকে জানি। তাহলে আমাদের ভালো হবে, অনেক ভালো।এবার বল দেখি!আসমান জমিন কে সৃষ্টি করেছেন? চাঁদ-সূর্য, গ্রহ-তারা কে সৃষ্টি করেছেন? পাহাড়-পর্বত, সাগর-নদী কে সৃষ্টি করেছেন? গাছ-পালা, পশু-পাখি কে সৃষ্টি করেছেন? রাত-দিন সকাল-সন্ধা, সময় কে সৃষ্টি করেছেন? এগুলো কি এমনিতেই হয়েছে? সময় নির্ধারণ, দিন, মাস, বছর নির্ধারণ চাদের জোসনা ও সূর্যের কিরণ, দিনের আলো, রাতের অন্ধকার এ সকল কিছু কি কোন পরিচালক ছাড়াই পরিবর্তন পরিবর্ধণ হচ্ছে?

দুনিয়া সৃষ্টিতে স্রষ্টার পরিচয়ঃ- মহান রাব্বুল আলামীন পৃথিবীর সবচেয়ে আলোকিত পূর্ণ গ্রন্থ এবং শ্রেষ্ঠ গ্রন্থ মহাগ্রন্থ আল-কুরআনের ৭ নম্বর সূরার ৫৪ নম্বর আয়াতে বলেনঃ “নিশ্চই তোমাদের প্রতিপালক আল্লাহ! যিনি আকাশসমূহ ও পৃথিবী 6 দিনে সৃষ্টি করেছেন অতঃপর যিনি আরশে সমাসীন হয়েছেন তিনি দিনকে রাত দ্বারা আচ্ছাদিত করেন, সে রাত দিন কে ডাকে দ্রুতগতিতে অনুসরণ করে আর সূর্য চন্দ্র নক্ষত্ররাজি কে তার বিধান এর অধীন করেছেন। জেনে রেখো সৃষ্টি ও বিধান তারই;বরকতময় আল্লাহ মহা বিশ্বের প্রতিপালক।”এর সমমান উক্তি বাইবেল সহ অন্যান্য প্রায় সকল ধর্ম গ্রন্থেই ছিলো।তার পরেও কিছু পাপী যারা আল্লাহর অস্তিত্ব স্বীকার করেনা।যারা বলে বিশ্ব ভ্রম্মান্ড তার নিজস্ব গতিতে চলে।এখানে যা কিছু ঘটছে সবই প্রকৃতির লীলা খেলা।একে চালানে ওয়ালা কেউই নেই। যারা আল্লাহর অস্তিত্বে বিশ্বাসী নয় তাদেরকে বলা হয় জড়বাদী।আর এরাই হলো নাস্তিক! এরাই কাফের।এরা পরকাল, জান্নাত,জাহান্নাম কোন কিছুতেই বিশ্বাসী নয়।তাই মরণোত্তর তাদের দেহ দান করে যায় গবেষণার জন্য। মৃত্যুর পর ডাক্তার তাদের কেটে-ছিড়ে মাটিতে পুতে ফেলে।মুসলিমদের ন্যায় সম্মানিত ভাবে দাফন কাফন হয়না।এরা আমাদের আদি পিতা মাতার সন্তান আমাদের ভাই।এদের পরকালীন অনন্তকাল শাস্তি থেকে বাচানোর জন্য আমার এই প্রচেষ্টা। এই যে ডিসেম্বর ২০১৯ থেকে আজ অবধি কোভিড-১৯ নামক ভাইরাসটির আঘাতে পৃথিবীর অসংখ্য মানুষ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। ইসরাইল সহ কয়েকটি রাষ্ট্র টিকা নেওয়ার পরেও আবার আক্রান্ত হয়েছেন। কেউবা টিকা নিয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন।কেউ আক্রান্ত হয়ে হাস্পাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা নড়ছে। কিন্তু এতো জ্ঞ্যাণী গুনি থাকতেও কেউই এই ভাইরাসের আকার আকৃতি বর্ণ আমাদের দেখাতে পারেনি।অথচ এর বিপরীতে আলহামদুলিল্লাহ হাজার হাজার মাদরাসার উস্তাদ এবং তালেবে ইল্মদের আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ’লা সুস্থ রেখেছেন।এ ক্ষমতা একমাত্র তারই।আমরা একই পাতিলের খাবার খেয়ে কেউ যুবক হচ্ছি, কেউবা যুবক হতে বৃদ্ধ হচ্ছি,আবার কেউ কেউ মৃত্যুর দিকে ঢলে পড়ছি।তার মানে এ খাবারের মধ্যেও যে শক্তি নিহিত,তাও অন্য কারো নিয়ন্ত্রণে। তা না হলে দুনিয়ার জুস মিশিনে যাই দেন না কেন জুস হয়েই কেন বের হয়?একই পাতিলের খাবার খেয়ে কেন ভিন্ন ভিন্ন প্রতিক্রিয়া ?

ইমাম মালিক ও আল্লাহর অস্তিত্বে বিশ্বাসঃ-জনৈক বাদশা ইমাম মালিক কে আল্ললাহর অস্তিত্ব সম্পর্কে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন,মানব আকার আকৃতির মধ্যেই আল্লাহর অস্তিত্বের প্রমাণ রয়েছে। এই বিশ্ব ভ্রম্মান্ড এর মাঝে একই গঠনাকৃতির, ভাষা, চাল-চলনের একই রকম ২জন মানুষ পাওয়া যাবে না। এটাইতো স্রষ্টার নিপূণতার পরিচয় বহন করে। আল্লাহ আমাদের প্রচেষ্টাকে কবুল করুন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ