,


শিরোনাম:
«» তুরাগে গৃহবধু হত্যার অভিযোগে স্বামীর বন্ধু গ্রেফতার «» ভাড়া বাসায় অবস্থান করে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতী করতো তারা’ «» ঈশ্বরদীতে ২০০ লিটার মদসহ গ্রেফতার ১ «» ঈশ্বরদীতে নবজাতক হত্যার অভিযোগ সাবেক স্বাস্থ্যকর্মীর আকলিমার বিরুদ্ধে «» সাংবাদিকতার দায় একমাত্র জনসাধারণের কাছে:তিতুমীর «» ঈশ্বরদীতে প্রণোদনার সার-বীজ প্রদানে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ প্রকৃত কৃষকদের «» ঈশ্বরদীতে বালু খেকোদের কবলে বিলিন হাজার হেক্টর ফসলি জমি, দিশেহারা কৃষক «» ঠাকুরগাঁওয়ে বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস পালিত র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» চাঁপাইনবাবগঞ্জ সাবেক এমপি ও জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদকের বাসভবনে হামলা «» চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষকলীগের অনুষ্ঠানে সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা মিনহাজ আহত

টেকনাফে আলোচিত মানব পাচারকারী যুবক গডফাদার

 আটক নুরুল,আলম টেকনাফঃ টেকনাফের বাহারছড়া পুলিশ ফাঁরির পুলিশের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে এক মানব পাচার কারীর মামলার পলাতক আসামী ও চিহ্নিত আলোচিত দালালকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ভোর রাতে টেকনাফ বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ী পরিদর্শক তদন্ত কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদ একটি পুলিশের দল নিয়ে বাহারছড়া নোয়াখালী জুম্মা পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে মানব পাচারকারীর মামলার পলাতক আসামী আব্দুল আলীর পুত্র সাইফুল ইসলাম ২৬) কে আটক করে। পুলিশ তার বিরুদ্ধে গত বছরের ১০ ফ্রেব্রুয়ারী রাত পৌনে ৮টারদিকে ১০৯জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুদের প্রলোভন দেখিয়ে ৩টি ইঞ্জিন নৌকাযোগে মালয়েশিয়া পাঠানোর সময় সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপের ১০নটিক্যাল মাইল দূরে ট্রলার ডুবির ঘটনায় ১৫ জনের তরুণ মৃত্যু ঘটে। অবশিষ্টরা কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সহায়তায় প্রাণে রক্ষা পায়। উদ্ধারকৃত ভিকটিমেরা ধৃত এই দালালের নাম স্বীকার করায় তৎকালীন তার বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় মামলা হয়. মামলা নং-৩০/১৪০, তারিখ-১১-০২-২০ইং, ধারা-৩০২/৩৪ পেনালকোড তৎসহ ২০১২ সালের মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন ৭/৮ মামলার আসামী ছিল। এরপর সে পলাতক ছিল। আটকের দিন রাতেও সে মালয়েশিয়ায় পাচারের জন্য লোকজন জড়ো করার গোপনীয় সংবাদ পেয়ে অবৈধ কারবারী বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে গিয়েই এক মানব পাচারকারী গডফাদারকে আটক করতে সক্ষম হয়। এই ব্যাপারে বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ী ভারপ্রাপ্ত পরিদর্শক নুর মোহাম্মদ প্রায় বলেন দীর্ঘদিন পর পুলিশ মানব পাচারকারী এই গডফাদারকে মানব পাচারের প্রস্তুতিকালে আটক গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে কক্সবাজার জেলা আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করে জানিয়েছেন তিনি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ