,


শিরোনাম:
«» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ। «» শিবগঞ্জে অস্ত্র ও ককটেল সহ ১৩ মামলার আসামি গ্রেপ্তারে র‍্যাব «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স সম্পন্ন «» ফরিদগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,অভিযুক্ত যুবক আটক «» মুহাম্মদ স: কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে তুরাগ ও উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অনুষ্ঠিত। «» দুই সন্তান নাজমুল ও সুপারেশ কর্তৃক বৃদ্ধা মা লাঞ্ছিত” থানায় অভিযোগ «» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার

ছাতকে ভুয়া ইউএনও’র পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৩৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক

সেলিম মাহবুব,ছাতকঃ ছাতকে ইউএনও পরিচয় দিয়ে দু’ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৩৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে উপজেলার জাউয়া বাজারে। ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা জানান, জাউয়া ইউপি সচিব কায়েছ মাহমুদের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে কল করে নিজেকে ইউএনও পরিচয় দিয়ে জাউয়া বাজারস্থ মিষ্টির দোকান ও বেকারী মালিকদের নাম ও মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে তাকে দিতে বলেন। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে ইউপি সচিব কায়েছ মাহমুদ গ্রাম পুলিশ সুহেল মিয়াকে বাজারে পাঠান নাম ও মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করতে। গ্রাম পুলিশ সুহেল মিয়া বাজারে গিয়ে বাজারের মিষ্টি দোকান, বেকারী মালিকদের সাথে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন দিয়ে সরাসরি ইউএনও পরিচয়দানকারী ব্যক্তির সাথে আলাপ করিয়ে দেন। এসময় ইউএনও পরিচায়দানকারী ওই ব্যক্তি দোকান মালিকদের নাম ও মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে নেয়। এ ঘটনার কিছুক্ষণ পর ব্যবসায়ীদর মোবাইল ফোনে কল করে নিজেকে ছাতক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাসহ ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করার ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে। মোবাইল কোর্টের ঝামেলা এড়াতে বাজারের মিতালী মিষ্টি ঘরের মালিককে ৩০ হাজার এবং লিমা সিমা মিষ্টি ঘরের মালিককে ৫ হাজার টাকা বিকাশ একাউন্টে পাঠানোর জন্য নির্দেশ দেয় ইউএনও পরিচয়দানকারী ব্যক্তি। এসময় মিতালী মিষ্টি ঘরের মালিক দীপক রঞ্জন তালুকদার ৩০ হাজার এবং সিমা মিষ্টি ঘরের মালিক মফিজ মিয়া ৫ হাজার টাকা ওই ব্যক্তির পাঠানো মোবাইল বিকাশ ০১৬১০৪৭৪০২৯ নাম্বারে পাঠিয়ে দেয়। পরবর্তিতে বিভিন্নভাবে যোগাযোগ করে ওই ব্যবসায়ীরা জানতে পারেন ভুয়া ইউএনর মাধ্যমে তারা প্রতারিত হয়েছেন। এসব প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জানিয়েছেন জাউয়া বাজার ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির নেতৃবৃন্দ।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ