,


শিরোনাম:
«» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল। «» আবদুল আউয়াল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» তুরাগ বাসীসহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার ডিলারদের অনিয়মে জিম্মি কৃষক ও চাষিরা «» ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে গাড়ির চাপায় সাবেক পুলিশ সদস্য নিহত «» চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান এমপি হাবিব হাসান। «» মশার অসহ্যকর যন্ত্রণায় তিক্ত তুরাগবাসী, দায়িত্বশীলরা বলছেন অসহায়ত্বের কথা «» তুরাগে মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর বস্তিবাসীর হামলা। 

টেকনাফ বাহারছড়ার এলজিইডি’র সড়ক এখন মরণ ফাঁদে পরিনত ও পৌর সভা

নুরুল আলম টেকনাফ: টেকনাফ পৌর হয়ে বাহারছড়া এলজিইডি’র সড়কের বাহারছড়া ইউনিয়ন শামলাপুর পর্যন্ত প্রায় ৩৫ কিলোমিটার জরা জীর্ন হয়ে পড়েছে। সড়কে আসলে সৃষ্টিকর্তার নাম স্বরন করতে হয়। কখন যে গাড়ী উল্টে গিয়ে আহত হয়ে মৃত্যুবরণ করতে হয়ও হয়েছে ।প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি পুর্ণ নিয়ে চলাচল করছে যাত্রীবাহী বাসসহ সব ধরনের যানবাহনে গর্ত দেখলেই কেপে উঠে যাত্রীরা। তাদের অভিযোগ সড়কটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ হলেও দীর্ঘসময় যাবদ সংস্থার না হওয়ায় বিভিন্ন অংশে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে অহরহ ঘটছে নানান ধরনের দূর্ঘটনা। সাধারণ মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এই নিয়ে কোন মাথা ব্যথা নেই বলে যানা যায় এবিষয় টেকনাফে এলজিইডি’র সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক হচ্ছে টেকনাফ বাহারছড়ার সড়ক। বর্ষার মৌসুমে প্রচন্ড বৃষ্টিপাতের কারণে সড়কটি শতাধিক স্থানে খানা খন্দকের সৃষ্টি হয়।এখন তা বড় বড় গর্তে পরিনত হয়েছে। সে কারণে ঐ সড়ক দিয়ে যাত্রীবাহী যানবাহন চলাচল বেশ ঝুঁকিপুর্ণ বলে জানান টেকনাফ বাহারছড়া সড়কের চলাচলকারী একাধিক যানবাহন চালক।তারা বলেন গাড়ী চালানোর সময় বুক থরথর করে কেঁপে ওঠে। টেকনাফ বাহারছড়া সিএনজি চালক সমিতির সভাপতি রফিক বলেন টেকনাফ বাহারছড়া সড়কের নোয়াখালী পাড়া’র সড়কটির কালভাটের বেহাল দশা ও টেকনাফ পৌর সভায় সড়কপথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে সর্বসাধারণের। এমনকি ১০মিনিটের সড়ক ১ঘন্টারও বেশি সময় লেগে যায়।টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের একাধিক লোকজন জানান, সড়কটি দ্রুত সময়ে প্রশস্ত করে সংস্কার করা প্রয়োজন। এলজিইডি’র আওতাধীন এই সড়ক দিয়ে ২টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার হাজার বাজারে মানুষ কক্সবাজার জেলা সদর সহ সারা দেশের সঙ্গে চলাচল করতে হয়।ইহা দ্রুত সময়ে সংস্কার করা না গেলে আগামী বর্ষা মৌসুম আসলে সড়কের গর্ত পানিতে পরিপূর্ণ হয়ে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনা ঘটবে। অনেক যাত্রী বিকেলাঙ্গ ও মৃত্যু বরণ করতে পারে বলে আশংকা এলাকাবাসীর। টেকনাফ উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) মোঃআরিফ হোছন থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন সড়কটি দ্রুত সময়ে টেন্ডার দেওয়া হবে এবং কাজ শুরু করা প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ