,


শিরোনাম:
«» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল। «» আবদুল আউয়াল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» তুরাগ বাসীসহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার ডিলারদের অনিয়মে জিম্মি কৃষক ও চাষিরা «» ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে গাড়ির চাপায় সাবেক পুলিশ সদস্য নিহত «» চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান এমপি হাবিব হাসান। «» মশার অসহ্যকর যন্ত্রণায় তিক্ত তুরাগবাসী, দায়িত্বশীলরা বলছেন অসহায়ত্বের কথা «» তুরাগে মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর বস্তিবাসীর হামলা। 

পাওনাদারের অত্যাচারে আত্মহত্যা

 সেলিম মাহবুব,ছাতকঃ ছাতকে পাওনাদারের অত্যাচারে শামছুল হক নামের এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ২৭ জানুয়ারী উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের আকুপুর গ্রামে। শামছুল হক আকুপুর গ্রামের মৃত সোনাহর আলীর পুত্র। এ ঘটনায় মৃত ব্যক্তির ছোটভাই নূরুল হক ২৯ জানুয়ারী একই গ্রামের আব্দুর রহিম, আব্দুল হাদিস, পাবেল মিয়া ও আশিক মিয়ার বিরুদ্ধে ছাতক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ থেকে জানা যায়, আত্মহত্যাকারী শামছুল হকের কাছে ২ লাখ টাকা পাওনার বদৌলতে প্রতিপক্ষরা তাদের বসতভিটা দখল নেয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু এ বসতভিটার যৌথ মালিক শামছুল হকসহ তিনভাই হওয়ায় তারা এতে বাঁধা হয়ে দাড়ায়। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে তীব্র বিরোধ চলে আসছিল। এক পর্যায়ে শামছুল হকসহ তার তিনভাই পাওনা টাকা ফেরত দিতে চাইলে প্রতিপক্ষরা টাকা না নিয়ে তাদের বসতভিটা দাবী করে অনত্র চলে যাওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। ঘটনার প্রায় ৩ সপ্তাহ আগে প্রতিপক্ষরা বাড়ি থেকে লক্ষাধিক টাকা মুল্যের ছোট-বড় গাছ, বাঁশ কেটে নেয় এবং জোরপূর্বক শামছুল হক তার স্ত্রীকে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে বাড়ির দলিল ও তাদের ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে যায় প্রতিপক্ষরা। ২৬ জানুয়ারী রাতে প্রতিপক্ষের লোকজন শামছুল হক ও তার পরিবারের লোকজনদের বাড়ি থেকে জোর পূর্বক বের করে দিয়ে তাদের ঘরে তালা ঝুলিয়ে দেয়। ২৭ জানুয়ারী দুপুরে ঘরের তীরের সাথে গলায় মাপলার দিয়ে আত্মহত্যা করে শামছুল হক। এ ঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। শামছুল হকের পরিবারের দাবী পাওনা টাকার অযুহাতে তাদের বসত ভিটা দখলে নিতে প্রতিপক্ষের লোকজনের অত্যাচার-নির্যাতন চালায়। এসব নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে শামছুল হক আত্মহত্যার পথ বেচে নেয়। অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ছাতক থানার এসআই আরেফিন অভিযোগ প্রাপ্তীর কথা স্বীকার করেছেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ