,


শিরোনাম:
«» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল। «» আবদুল আউয়াল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» তুরাগ বাসীসহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার ডিলারদের অনিয়মে জিম্মি কৃষক ও চাষিরা «» ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে গাড়ির চাপায় সাবেক পুলিশ সদস্য নিহত «» চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান এমপি হাবিব হাসান। «» মশার অসহ্যকর যন্ত্রণায় তিক্ত তুরাগবাসী, দায়িত্বশীলরা বলছেন অসহায়ত্বের কথা «» তুরাগে মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর বস্তিবাসীর হামলা। 

রহনপুর পৌর মেয়র নির্বাচনে বিজয়ী হলেন আ.লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী মতি

ফাহিম ফরহাদ, বিশেষ প্রতিবেদকঃ সুষ্ঠ, শান্তিপূর্ণ ও বড় ধরনের কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সম্পন্ন হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ রহনপুর পৌরসভা নির্বাচন। মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মতিউর রহমান মতি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী গোলাম রাব্বানী বিশ্বাসের থেকে ৫৬৫ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হলেন মতি। শনিবার (৩০ জানুয়ারি ২০২১খ্রি.) রাত সোয়া ১০টায় রহনপুর পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মো. মোতাওয়াক্কিল রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সতন্ত্র প্রার্থী মতিউর রহমান মতি চামচ প্রতীকে ৭৬২৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের প্রার্থী গোলাম রাব্বানী বিশ্বাস পেয়েছেন ৭০৬২ ভোট। এছাড়াও বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী তারিক আহমেদ ২৮৮০ ভোট এবং বিএনপির দুই বিদ্রোহী প্রার্থী জগ প্রতীকে আশরাফুল ইসলাম ৩২০৫ ভোট ও নারিকেল গাছ প্রতীকে ডা. মফিজ উদ্দিন পেয়েছেন ১০৭৬ ভোট। এছাড়াও আরেক সতন্ত্র প্রার্থী নূরে আলম সিদ্দিকী মোবাইল প্রতীকে ৮৩ ভোট ও বাংলাদেশ কংগ্রেস দলের প্রার্থী ডা. জোহানা খাতুন ফ্রেডিক ডাব প্রতীকে পেয়েছেন ৫০ ভোট। এর আগে রাত সাড়ে আটটার দিকে নৌকা ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সর্মথকদের উত্তেজনার প্রেক্ষিতে দেড় ঘন্টা ফলাফল ঘোষণা বন্ধ রাখে নির্বাচন অফিস। নির্বাচনে মেয়র পদে ৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। রহনপুর পৌরসভারমোট ভোটার সংখ্যা ২৭ হাজার ৯৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ১৮৪ জন ও মহিলা ভোটার ১৩ হাজার ৯১৩ জন। শনিবার ১১টি কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়, নির্বিঘ্নে ভোট গ্রহন চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, ভোটারদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। তবে পুরুষ ভোটারদের চেয়ে নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশি লক্ষ্য করা গেছে। নির্বাচনকে ঘিরে পুরো এলাকা জুড়েই ছিল উৎসব মুখর পরিবেশ। উল্লেখ্য, শুরু থেকেই আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নেতা-কর্মীদের বিরুদ্বে নানা ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ করে আসছিলেন নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী মতিউর রহমান মতি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ