,


শিরোনাম:
«» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ। «» শিবগঞ্জে অস্ত্র ও ককটেল সহ ১৩ মামলার আসামি গ্রেপ্তারে র‍্যাব «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স সম্পন্ন «» ফরিদগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,অভিযুক্ত যুবক আটক «» মুহাম্মদ স: কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে তুরাগ ও উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অনুষ্ঠিত। «» দুই সন্তান নাজমুল ও সুপারেশ কর্তৃক বৃদ্ধা মা লাঞ্ছিত” থানায় অভিযোগ «» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল।

যৌন উত্তেজক সিরাপ সয়লাব ঈশ্বরদী হাট-বাজার

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি: ঈশ্বরদী বিভিন্ন হাট বাজার দেশীয় ও ভারতীয় যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট সিরাপ সহ নিম্নমানের ওষুধে সয়লাব হয়ে গেছে। চোরা কারবারীদের মাধ্যমে প্রতিদিন বৃহত্তর পাবনা জেলা ও ঈশ্বরদী উপজেলা শহর ও প্রত্যন্তাঞ্চলের হাট-বাজারে আমদানি নিষিদ্ধ নিম্নমানের যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট ও সিরাপ বিভিন্ন ওষুধ আনা হচ্ছে। আর এসব ওষুধ নিজস্ব লোকের মাধ্যমে নির্বিঘ্নে স্থানীয় পাইকারি খুচরা দোকানেগুলোতে বিক্রি করা হচ্ছে বলে নির্ভরযোগ্য একাধিক সূত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র মতে এই যৌন উত্তেজক সিরাপ ব্যবসায়ী আইন প্রয়োগকারী সংস্থার চোখকে ফাঁকি দিয়ে ঈশ্বরদী উপজেলা সহ সহ বিভিন্ন পথ দিয়ে নির্বিঘ্নে এসব যৌন উত্তেজক সিরাপ পাচার করে সড়ক ও রেলপথে জেলা, উপজেলা শহর, হাট-বাজার ও প্রত্যন্তাঞ্চলের খুচরা পাইকারি দোকান গুলোতে নির্বিঘ্নে বিক্রি করা হচ্ছে। তৈরিকৃত এসব সিরাপ জেলাগুলোতে আনার পর সেগুলো নিয়োগ করা নিজস্ব অ্যাজেন্টের মাধ্যমে পুরো জেলার খুচরা পাইকারি দোকানেগুলোতে সরবরাহ করা হয়। এসব নিম্নমানের মেয়াদোত্তীর্ণ সিরাপ কিনে সাধারণ মানুষ প্রতারিত ও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এ ছাড়াও দেশের বিভিন্ন সিরাপকোম্পানি সঠিক না রেখে কোম্পানিগুলো সিরাপ তৈরি করছে। ওষুধ প্রশাসনের নজরদারি ও তদারকির অভাবে ব্যাঙের ছাতার মতো বৃদ্ধি পেয়েছে। এ ব্যাপারে একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আমাদের দেশীয় কিছু কিছু ওষুধ ও সিরাপ কোম্পানির তৈরি ওষুধও সিরাপ মান ভালো, কিন্তু অধিকাংশ কোম্পানির তৈরি ওষুধের মান ভালো নয়। অনেক ক্ষেত্রে ওষুধে কাজ হয় না। ঈশ্বরদী বাজারে কয়েকটি দোকান থেকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে অনেক ওষুধই নিম্নমানের ও মেয়াদোত্তীর্ণ। এ ছাড়াও নিম্নমানের হওয়ার ফলে সিরাপ যথাযথ তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণের অভাবে অনেক সিরাপের কার্যকারিতা নষ্ট হয়ে যায়। এসব ওষুধ খেলে রোগ ভালো তো হয়ই না, বরং আরো জটিল রোগে আক্রান্ত হয়। এমন কি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।বিষয়টি প্রশাসনিকভাবে জরুরী ভিত্তিতে নজরদারি প্রয়োজন বলে সচেতন মহল মনে করেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ