,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি ঐতিবাহী গ্রামীণ পাতা খেলা অনুষ্ঠিত

জুয়েল শেখ জয়পুরহাট প্রতিনিধি:  জয়পুরহাটের পাঁচবিবি ঐতিবাহী গ্রামীণ পাতা খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার বিকালে উপজেলার ধরঞ্জী ইউনিয়নের তাজপুর যুব সমাজের আয়োজনে হারিয়ে যাওয়া এই পাতা খেলা তাজপুর গ্রামে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজন করায় বিভিন্ন গ্রামের নারী পুরুষের মনকে আনন্দে ভরিয়ে দিয়েছে কয়েক মর্হুত। আয়োজকরা বলছে গ্রামীন এই ঐতিবাহী পাতা খেলা আয়োজনের মাধ্যমে নবীন প্রজম্মের মাঝে পরিচিত করাই মূল উদ্দেশ্য আমাদের। তাজপুর গ্রামের একটি ফসলী মাঠের মধ্যে গোলাকার হয়ে দাঁড়িয়ে আছে নারী পুরুষরা মাঝখানে পুতে রাখা একটি কলা গাছের চারিদিকে বসে আছে ৫-৬জন মানুষ যাদের গ্রামীণ ভাষায় পাতা খেলা তাদের মন্ত্রের মাধ্যমে নিদিষ্ট বৃত্তের মধ্যে রাখা হয়েছে। আর দর্শক সারিতে খন্ড খন্ড ভাবে রয়েছে কিছু মন্ত্র পাঠক গুনোমান যাদের কাজ তাদের তন্ত্র মন্ত্র পাঠের মাধ্যমে কলা গাছের বৃত্তের মধ্যে থাকা মন্ত্রবান ভেদ করে। আর পাতাগুলো কে নিজের কাছে যে যত বেশি টানতে পারবে সে এই খেলার বিজয়ী হবে। উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের মন্ত্র পাঠক ফজলু রহমান বলেন আমি দীর্ঘ ২০ বছর ধরে এই পাতা খেলায় অংশ গ্রহণ করেছি ও করছি। আমার জীবনে বহু খেলায় পাতা টেনে পুরুস্কার পেয়েছি উপজেলার আটুল গ্রামের অপর ফিরোজ হোসেন জানান, যেখানেই পাতা খেলার সংবাদ পাই সেখানে আমি ছুটে যাই। খেলা দেখতে আসা নারী পুরুষরা বলেন, গ্রামীণ সংস্কৃতির এই আনন্দদায়ক খেলা গুলো ইদানিং হারিয়ে যেতে বসেছে। নতুন করে আবার এই পাতা খেলা দেখতে পাওয়ায় খুব ভালো লেগেছে আমাদের যখন বিভিন্ন ধরনের ছন্দের মাধ্যমে মন্ত্র পাঠ করা হয় তখন অনেক মজা পাওয়া যায়। আর পাশাপাশি কোন গুনোমানের কি রকম মন্ত্রের শক্তি তা পাতা টানার মাধ্যমে জানা যায়। স্থানীয় চেয়ারম্যান মেম্বার ও সাংবাদিক বাবুল হোসেন বলেন এটি একটি ঐতিবাহী গ্রামীণ এ খেলা। এখনও গ্রামের সকল বয়সের মানুষের অত্যন্ত জনপ্রিয় গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী এই খেলা মাঝে মাঝে আয়োজনের মাধ্যমে বিনোদন পাওয়া যায় আর মানুষের উৎসাহিত করবে বলে মনে করছেন বিভিন্ন গ্রাম থেকে আসা নারী পুরুষ পাতা খেলা ভক্তরা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ