,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে আজমেরি পরিবহনের ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী স্বামী-স্ত্রী নিহত

অনলাইন ডেক্স: রাজধানীর বিমানবন্দর থানা এলাকায় আজমেরি পরিবহনের বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী স্বামী-স্ত্রী নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন, আকাশ ইকবাল (২৭) ও মায়া হাজারিকা (২৩)।দুর্ঘটনার পর খবর পেয়ে বিমানবন্দর থানা পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। পুলিশ দুর্ঘটনা কবলিত ঘাতক বাসও মোটরসাইকেল জব্দ করেছে।আজ সোমবার  সকাল সোয়া ৭টার দিকে বিমানবন্দর সড়কের পদ্মা ওয়েল (বনরূপা) গেইটের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ডিএমপি বিমানবন্দর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মশিউল আলম  আজ সোমবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান, সোমবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে আকাশ ইকবাল মোটসাইকেলে তার স্ত্রী মায়া হাজারিকাকে সাথে নিয়ে দক্ষিণখানের মোল্লারটেকের বাসা থেকে বনানী অফিসের উদ্দেশে বের হন। তারা বিমানবন্দর সড়ক পদ্মা ওয়েল (বনরূপা) গেটের সামনে পৌঁছালে দ্রুতগতিতে ছেড়ে আসা আজমেরি পরিবহনের ঢাকা মেট্রো-ব- ১৫-৪২৫৪ নম্বরের একটি বাস তাদের বহনকারী মোটরসাইকেলটিকে সজোরে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের দুৃই জনের মৃত্যু হয়।পুলিশের এ কর্মকর্তা আরও জানান,  নিহতরা রাজধানীর দক্ষিণখান মোল্লারটেকে এলাকায় বসবাস করতেন। নিহত  আকাশ ইকবাল  পদ্মা সেতুর একটি প্রকল্পে কনসালটেন্ট হিসেবে চাকরী করতেন এবং  তার সহধর্মীনি মায়া হাজারিকা বনানী এলাকায় একটি কফি হাউজে  চাকরী করতেন বলে জানা গেছে।দুর্ঘটনার পর বিমানবন্দর থানা পুলিশ ঘাতক বাস ও মোটরসাইকেলটিকে জব্দ করেছে।  তবে, বাসের চালক ও হেলপার কৌশলে পালিয়ে গেছে। পরে নিহতদের মরদেহ দু’টি পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। এঘটনায় রোড এক্য্রিডেন্ট আইনে বিমানবন্দর থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ