,


শিরোনাম:
«» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ। «» শিবগঞ্জে অস্ত্র ও ককটেল সহ ১৩ মামলার আসামি গ্রেপ্তারে র‍্যাব «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স সম্পন্ন «» ফরিদগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,অভিযুক্ত যুবক আটক

চরফ্যাশনে ঢাল চরের নদী ভাঙা ৫ শত পরিবারের কান্না থামেনি!

এ.এইচ. রিপন ভোলা প্রতিনিধি৷ ভোলা জেলা চরফ্যাশন উপজেলার বিচ্ছিন্ন ইউনিয়ন ঢাল চরে মেঘনান দীর ভাঙ্গনে ভিটেমাটি হারানো প্রায় ৫ শত পরিবারের কান্না আজও থামেনি৷ তাদের দাবি ভাত-কাপড় চাইনা একটু বসবাসের জমি চাই৷

সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) সরেজমিনে দেখা যায়, মেঘনা নদীর মোহনায় অবস্থিত ঢালচর ইউনিয়নের ৯ ওয়ার্ডের মধ্যে ৬টি ওয়ার্ড মেঘনা নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে৷ নদী ভাঙ্গনের শিকার ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর জীবন যাত্রা স্থবির হয়ে পরেছে৷ কেউ বনের মাঝে, কেউ নদীর পাড়ে, কেউবা আবার অন্যের যায়গায় ঝুপড়ি বেঁধে শীত ও নদীর ঠান্ডা বাতাসের মধ্যে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এদের মধ্যে বেশির ভাগ মানুষেরই শীত নিবারনের একটি কাপড়ও নেই বলে জানা গেছে।

তাদের মধ্যে একজন সাহেব আলী মিয়াজী (৭০) বলেন, ৪৫ বছর ধরে ঢাল চরে বসবাস করি, কারো কাছে কোনো দিন কিছুই চাইনি৷ ৩ বার নদী ভাঙ্গনের পরে আপনাদের কাছে একটু বসবাসের জায়গা ভিক্ষা চাই৷ ফরেস্টের লোকজন বনের মধ্যে থাকতে দেয়না৷ শুধু মামলার ভয় দেখায়৷

ঢালচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম পাটওয়ারী বলেন, ভাঙনে পরিষদ হারানোতে এখন ব্যক্তিগত ঘরে অস্থায়ী পরিষদ চালাতে হচ্ছে। মানুষের মাথা গোঁজার ঠাঁই নেই। তাঁদের জরুরি পুনর্বাসন দরকার। বনের মধ্যে ফাঁকা জমি আছে, চর আছে সরকার ইচ্ছা করলে জমি বরাদ্দ দিতে পারে।

ভোলা জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম বলেন, ঢাল চরের নদী ভাঙ্গা পরিবারগুলোর পুর্নবাসনের জন্য ভুমি মন্ত্রণালয় বরাবর চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে৷ অনুমোদন সাপেক্ষে আবাসন নিশ্চিত করা হবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ