,


শিরোনাম:
«» কক্সবাজার টেকনাফের এডভোকেট আব্দুর রহমান ইয়াবাসহ তুরাগে পুলিশের জালে ধরা। «» জিএম কাদেরের ফোন ছিনতাই করে ২৩ হাজার টাকা বিক্রি, বসুন্ধরা মার্কেট থেকে ৮ দিন পর খোলা ফোন উদ্ধার। «» শেরে-বাংলা নগরে প্রশাসনকে মাসোহারা দিয়েই চলছে সরকারি দপ্তরের গাড়ির তেল চুরি «» উত্তরায় কিশোর গ্যাংয়ের ছিনতাইয়ের কবলে পথচারীরা। «» আব্দুল্লাহপুরের তালাবদ্ধ গরুর সিকল কেটে থানায় এনে চাঁদা আদায় ক্ষুব্দ গরুর মালিক  «» ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই ‘-শীর্ষক সেরা পাঠকদের পুরষ্কার বিতরণী «» মহানন্দা নদীতে যূবকের রহস্যজনক মৃত্যু হস্তক্ষেপ নেই দায়িত্বশীলদের «» জেলা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র মাস্টার প্যারেড সম্পন্ন «» দখিনের দুয়ার উম্মোচনে ফরিদগঞ্জে আনন্দ র‍্যালী «» আব্দুল্লাহপুরে এনা পরিবহনের বাস চাপায় মৃত্যু পথযাত্রী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাআ’দ।

নওগাঁয় চিলকোটা ভেঙে পড়ে নিহত-২

আল ইমরান, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি: নওগাঁর বদলগাছীতে বাড়িতে ট্যাক্টরের ঢোকাতে গিয়ে চিলকোটা ভেঙে পড়ে দুইজন নিহত ও একজন আহত হয়েছে। আহত ব্যক্তিকে আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  নেওয়া হয়েছে।
আজ বুধবার সকাল ১১ টায় উপজেলার সাগরপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। নিহত দুই ব্যক্তি হলেন, মোঃ মিজানুর রহমান এর ছেলে নাজমুল হক (২৫), মোহাম্মদ আলীর ছেলে লিটন হোসেন (২২)। নিহতদের বাড়ী সাগরপুর গোয়ালপাড়া গ্রামে। নাজমুল হক ট্যাক্টরের সহকারী আর লিটন হোসেন ট্যাক্টর মালিকের ছেলে বলে জানা যায়।
প্রত্যক্ষদর্শী ও গ্রামবাসীরা জানান, ট্যাক্টর মালিক মোহাম্মদ আলী তাঁর ছোট ভাই জিল্লুর রহমানের বাড়ীতে ট্যাক্টর রাখতেন। আজ বুধবার সকাল ১১ টার দিকে তিন ব্যক্তি ওই বাড়িতে ট্যাক্টর ঢোকাতে গেলে দরজা আটকে যায়। তখন একব্যক্তি সাবল এনে দরজায় ধাক্কায় দিলে চিলেকোটা ভেঙে তাঁদের ওপর পড়ে। লোকজন এসে তাঁদের উদ্ধার করে দুই জনকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতাল ও একজনকে আক্কেলপুর উপজেলা হাসপাতালে পাঠায়।
পথিমধ্যে নাজমুল হক ও লিটন হোসেন মারা যান। আহত অখিল চন্দ্রের অবস্থা আশঙ্কাজনক। খবর পেয়ে বদলগাছী থানার ওসি (তদন্ত) শাহিনুর ইসলাম, এসআই নৃপেন্দ্রনাথ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।
ওসি শাহিনুর রহমান বলেন, ট্যাক্টর ঢোকাতে গিয়ে চিলেকোটা ভেঙে পড়ে নাজমুল হক ও লিটন হোসেন মারা গেছেন। এঘটনায় আরও একজন আহত হয়েছেন। বাড়ীর চিলেকোটা নির্মাণে ক্রুটি থাকায় সেটি ভেঙে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সাগরপুর গ্রামে শোকের মাতম চলছে।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ