,


শিরোনাম:
«» রাজধানীর তুরাগে ডোবা থেকে অজ্ঞাত তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার «» উত্তরায় মা দিবস উপলক্ষে ৩০জন রত্নগর্ভা ‘মা’কে সম্মাননা «» উত্তরায় শিনশিন জাপান হাসপাতালে রোগীকে আটক রেখে নয় লাখ টাকা বিল। «» আবদুল আউয়াল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» তুরাগ বাসীসহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন «» চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার ডিলারদের অনিয়মে জিম্মি কৃষক ও চাষিরা «» ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে গাড়ির চাপায় সাবেক পুলিশ সদস্য নিহত «» চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান এমপি হাবিব হাসান। «» মশার অসহ্যকর যন্ত্রণায় তিক্ত তুরাগবাসী, দায়িত্বশীলরা বলছেন অসহায়ত্বের কথা «» তুরাগে মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর বস্তিবাসীর হামলা। 

রাজশাহীতে সংঘর্ষে নিহত ১, নারীসহ আহত ৮

রাজশাহী বিভাগীয় চীফঃ রাজশাহীর পুঠিয়ায় জমি নিয়ে বিরোধে দুইপক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের নারীসহ অন্তত আট জন আহত হয়েছে। আহতের মধ্যে দুইজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
অন্যদের পুঠিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সোমবার বিকেলে উপজেলার ফুলবাড়ি আজিমপাড়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে।
নিহতের নাম মিঠু আলী (২৮)। তিনি ফুলবাড়ি আজিমপাড়া গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে। রামেক হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থার তার মৃত্যু হয়। আহত অপরদিনজন হলেন- নিহত মিঠুর ভাই দুলাল আলী (৩০) ও তার চাচা জিন্নাত আলী (৫০)।
পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুর রহমান ভুইয়া জানান, ফুলবাড়ি আজিমপাড়া গ্রামের ওমর হাজির ছেলে শাজাহান আলী (৩৫) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে জমি নিয়ে বিরোধে দুলাল আলীর সঙ্গে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে শাজাহান আলী ও তার লোকজন ধারালো হাসুয়া দিয়ে দুলাল আলী, তার ছোট ভাই মিঠুন আলী ও তাদের চাচা জিন্নাত আলীকে কুপিয়ে জখম করে।
এসময় শাজাহান আলীর বাবা ওমর হাজিসহ উভয় পরিবারের নারীসহ আটজন আহত হন। পরে গ্রামবাসী আহতদের উদ্ধার করে দুলাল, মিঠু ও জিন্নকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিঠু মারা যায় বলে জানান ওসি সায়েদুর।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ